বাংলাদেশ

অনুমতি না থাকার পরও লেবানন থেকে ফিরল ২৭৮ জন

অনুমতি না থাকার পরও লেবানন থেকে ফিরলো ২৭৮ জন বাংলাদেশী। তাদের ছাড়িয়ে নিতে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে বিক্ষোভ করেছেন স্বজনরা । তবে শেষ পর্যন্ত হজক্যাম্পে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে তাদের।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ইউরোপ ও ১২টি দেশ থেকে যাত্রী পরিবহন নিষিদ্ধ করে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ। সেই ১২টি দেশের তালিকায় রয়েছে লেবাননও। অথচ নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ২৭৮ জন যাত্রী নিয়ে লেবানন থেকে রাতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট দেশে পৌছায়। শুরুতে ফ্লাইটটি নামতে না দেয়া হলেও মানবিক বিবেচনায় ফ্লাইটটি অবতরণ করতে দেওয়া হয়।

তবে তাদের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। কিন্তু লেবানন ফেরত যাত্রীদের স্বজনরা সেই সিদ্ধান্ত অমান্য করে বিক্ষোভ করলে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যরা তাদের সরিয়ে দেয়।

নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও কেন এমন সিদ্ধান্ত, সেই প্রশ্নের জবাবে শাহজালাল বিমানবন্দরের পরিচালক তৌহিদ উল আহসান জানালেন, সরকারের উর্ধ্বতন পর্যায় থেকে সিদ্ধান্ত, সেটি মানতে বাধ্য।

যাত্রীদের নিজ তত্ত্বাবধানে কোয়ারেন্টিনে নিতে বিমানবন্দরে আসেন হজ ক্যাম্পের ইনচার্জ মেজর মোস্তফা। তিনি জানান কঠোর ভাবে কোয়ারেন্টিন বাস্তবায়ন করার কথা।

এর আগেও নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বিভিন্ন দেশ থেকে ফ্লাইট এসেছিল, পরে মানবিক বিবেচনায় তাদের অনুমতি দেয়া হয়। এটিও করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার একটি বড় কারণ বলে মনে করেন অনেকেই।

জক/ফই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

হেঁচকি ওঠার কারণ ও কমানোর উপায়
মশা তাড়াতে যেসব উপকরণ ব্যবহার করা যায়
গ্রিন টির ভালো-মন্দ
পাহাড়ের ভাষা, সমতলের ভাষা