কলাম

আজি হতে শতবর্ষ আগে

অনীক আন্দালিব

আইনস্টাইন সাধারণ আপেক্ষিকতার তত্ত্বটা দিয়েছিল সেই ১৯১৫ সালে। এই তত্ত্ব দিয়ে মূলত মহাকর্ষ বল কীভাবে কাজ করে সেইটা বুঝা যায়। কিন্তু সেই সময়ে এইটা অনেকটা চিন্তার কসরৎ ধরনের একটা ধারণা ছিল। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বের করা কোনো সূত্র বা তত্ত্ব ছিল না। গত ১০৪ বছর ধরে অসংখ্য বিজ্ঞানী চেষ্টা করেছে এই তত্ত্বটাকে সঠিক বা ভুল প্রমাণ করার (কারণ বিজ্ঞানের কাজই এমন বেয়াদ্দপ কিসিমের, একজন বললো আর মেনে নিবো কেন?)।

 

এখন পর্যন্ত মহাবিশ্বে মহাকর্ষ বল কেমন করে কাজ করে সেইটা এই সাধারণ আপেক্ষিকতার তত্ত্ব দিয়েই ব্যাখ্যা করা হয়। ধরেন এতদিনের সব পরীক্ষা-নিরীক্ষা তার হিসাব মতোই গেছে। এই তত্ত্ব ব্যবহার করে বিজ্ঞানীরা মনে মনে কৃষ্ণবিবরের একটা ছবি কল্পনা করে নিয়েছিল। আজকের আগে পর্যন্ত সেটা আসলে দেখতে কেমন, তা তো আর আমরা কেউই জানতাম না। আজ বোঝা গেল আইনস্টাইন যে আঁক কষে গিয়েছিল সেটা নির্ভুল ছিল।

 

আমি জ্যোতির্পদার্থবিদও না, ইতিহাসবিদও না। ১৯১৫ সালের বিজ্ঞানীরা কৃষ্ণবিবর সম্পর্কে কতটা ধারণা রাখতো তা জানি না। তবে এটুকু জানি যে ষাটের দশকের আগে কৃষ্ণবিবর নিছকই একটা তাত্ত্বিক কৌতূহল বিশেষ ছিল। আজও যে আমরা এর সব রহস্য জেনে গেছি তেমনও না। অথচ ১০৪ বছর আগে আইনস্টাইন নির্ভুলভাবে এর ব্যাপারে ভবিষ্যদ্বাণী করে গেছে, শুধুমাত্র গণিত ব্যবহার করে!

 

আজকের এই ছবিটা তাঁর তত্ত্বের উৎকৃষ্টতারই প্রমাণ। সেই সময়ের একজন হয়ে সে এমন এক ধারণা বর্ণনা করে গিয়েছিল, যার চাক্ষুষ প্রমাণ পেতে একশ বছরেরও বেশি সময় লাগবে!

 

Today was a good day!

লেখক: পদার্থবিজ্ঞানের প্রভাষক, ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনির্ভাসিটি
LIVE
Play
প্রাণি নির্যাতন- মানুষ নির্যাতনের প্রাথমিক পর্যায়
প্রতিরোধ করো!
আজি হতে শতবর্ষ আগে
শবে মিরাজের উদ্দেশ্য কি?