বাংলাদেশ, শীর্ষ খবর

‘আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না’

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি নেতাকর্মীদের দুর্নীতি, অত্যাচার ও নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে বলেছেন, আর কখনও কোনো হায়েনার দল বাংলাদেশের মানুষের বুকে চেপে বসতে পারবে না। রক্ত চুষে খেতে পারবে না। যারা মানুষকে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে তারা আর কখনও এই দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে পারবে না।

তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে রাজনীতি করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

শনিবার রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের উত্তর ও দক্ষিণের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয় পার্টি ও বিএনপির সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই দলগুলো সৃষ্টি হয়েছে ষড়যন্ত্র করে। ক্ষমতা দখলের মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় বসে থেকে ক্ষমতার উচ্ছিষ্ট বিলিয়ে এই দলগুলো গঠন করা হয়েছে। এই দলগুলো মাটি থেকে গড়ে ওঠেনি। কোনো বিরোধী দলে থেকেও গড়ে ওঠেনি। এ দলগুলো মানুষের কথা চিন্তা করে গড়ে ওঠেনি। মানুষের জন্য কাজ করা, মানুষের উপকার করা, এগুলো তারা বোঝে না।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, ‘মানুষের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করছে সরকার। দেশের সার্বিক উন্নয়নেও নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। জনগণের টাকা জনকল্যাণেই ব্যয় হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘দেশবাসীকে পানি ও বিদ্যুৎ ব্যবহারে সচেতন হওয়ার তাগিদও দেন প্রধানমন্ত্রী। কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্রসঙ্গে সরকারপ্রধান বলেন, রাজনৈতিক নয়, তিনি জেল খাটছেন দুর্নীতির মামলায়।’

নির্বাচন নিয়ে বিএনপি যে প্রশ্ন তোলে তার সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন ‘জিয়াউর রহমান যেমন স্বাধীনতাবিরোধী ও যুদ্ধাপরাধীদের মন্ত্রী করেছিল, প্রধানমন্ত্রী করেছিল। খালেদা জিয়া ক্ষমতায় এসেও সেই একই কাণ্ড ঘটালো। ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়া একটা নির্বাচন করেছিল। যে নির্বাচনে বাংলাদেশের কোনও দল অংশ নেয়নি।’

ফই/সাহু/ফই

LIVE
বাংলাদেশে ২০১৯ সালের সেরা অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা
বুনোপ্রাণীর দেশ গাম্বিয়া
অভিবাসন প্রত্যাশীদের নিয়ে অভিনব প্রতারণা
কলার দাম ১ কোটি ১ লাখ ৭৬ হাজার টাকা!