দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৬৯৫ জন। ♦♦ নতুন ৪৮ জনের মৃত্যুর ফলে দেশে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৩ হাজার ৮৩ জনের। নতুন ২ হাজার ৬৯৫ জনসহ মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৩৪ হাজার ৮৮৯ জন। ♦♦ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৬৬৮ জন। আর মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১ লাখ ৩২ হাজার ৯৬০ জন।♦♦ করোনা উপসর্গ দেখা দিলে অথবা করোনা বিষয়ক জরুরি স্বাস্থ্যসেবা পেতে ৩৩৩ অথবা ১৬২৬৩ নম্বরে কল করুন এবং তথ্য পেতে www.corona.gov.bd ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।। এ ছাড়া আইইডিসিআরের ইমেইল বা ১৬২৬৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। ♦♦ www.livecoronatest.com এ আপনি ঘরে বসেই কোভিড-১৯ বা নভেল করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত কি'না, তা নিজেই মূল্যায়ন করতে পারবেন। এমনকি আপনার ঝুঁকির মাত্রা ও করনীয় সম্পর্কেও জানতে পারবেন।

আন্তর্জাতিক, আলোচিত, বাংলাদেশ

করোনাভাইরাসের নতুন নাম এনসিপি!

প্রাণঘাতী   চীনে এখন পর্যন্ত ৮১৩ জনের মৃত্যু ও ৩৫ হাজারের বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটলেও কোনো নাম দেয়া হচ্ছিল না ভাইরাসটির।

বৈশ্বিক আতঙ্ক এ ভাইরাসে নাম না দেয়ায় চীনের বাসিন্দারা এর উৎপত্তিস্থল উহানের নামে একে ডাকা শুরু করেছেন। বিষয়টি ওই শহরবাসীর জন্য জন্য অত্যন্ত বিব্রতকর।

আর এরই প্রেক্ষিতে করোনাভাইরাসে নতুন নাম ঘোষণা করেছে চীন। এখন থেকে এ ভাইরাসটিকে ‘নভেল করোনাভাইরাস নিউমোনিয়া’ সংক্ষেপে ‘এনসিপি’ নামে ডাকা হবে।

শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ নতুন নাম ঘোষণা করে চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন। পাশাপাশি নতুন নাম দেয়ার কারণও উল্লেখ করে তারা। তবে সাময়িক সময়ের জন্য এ নাম দেয়া হয়েছে। কারণ নামটি বৈজ্ঞানিকভাবে স্বীকৃত নয়।

যদিও এ ভাইরাসটি চূড়ান্ত নাম কবে ঘোষণা করা হবে এ বিষয়ে কোনো তথ্য জানায়নি চীনের স্বাস্থ্য কমিশন।

মহামারী রূপ ধারণ করতে যাওয়া ভাইরাসটির যথাযথ নাম দেয়া হয়নি এখনও। যদিও প্রথম থেকে একে করোনাভাইরাস বলে উল্লেখ করা হচ্ছে।

ভাইরাসটি নতুন বলে অনেকে একে ‘নভেল করোনা’ বলে ডাকছেন। একটি সাময়িকীতে একে ‘২০১৯-এনকভ’ নাম দেয়া হয়েছে। আনুষ্ঠানিক নাম না থাকায় অনেকেই একে চায়না ভাইরাস বলে ডাকছে।

ভাইরোলজিস্টরা বলছেন, ঠাণ্ডাজনিত অসুখের যে কোনো ভাইরাসের নামই করোনাভাইরাস। যে কারণে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের একটি উপযুক্ত নাম দিতে আলোচনা করে যাচ্ছে একদল বিজ্ঞানী।

এ বিষয়ে বিবিসিকে জনস হপকিন্স সেন্টার ফর হেলথ সিকিউরিটির সহকারী অধ্যাপক ক্রিস্টাল ওয়াটসন জানিয়েছেন, ‘খুব শিগগির ভাইরাসটির নাম ঘোষণা হতে যাচ্ছে। স্বাস্থ্যের ওপর কী ধরনের প্রভাব ফেলছে সে বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে ভাইরাসটির সঠিক নামকরণ হবে।’

এ ভাইরাসের নাম তাহলে করোনাভাইরাস কেন হলো এ প্রশ্নে অধ্যাপক ক্রিস্টাল ওয়াটসন বলেন, ‘অণুবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে দেখলে ভাইরাসটির মাথায় মুকুটের মতো স্পাইক বা কাটা দেখা যায়। দেখে মনে হয় যেন রাজমুকুটের ওপর থরে থরে অনেক দণ্ড সাজানো রয়েছে। তাই এদের করোনাভাইরাস নামকরণ করা হয়েছে।’

প্রাচীন গ্রিক শব্দ করোন থেকে সপ্তদশ শতকের দিকে লাতিন ভাষায় করোনা শব্দটির আগমন ঘটে। এর অর্থ ফুলের মুকুট।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সুপারিশকৃত নাম ২০১৯-এনকভ এর বিষয়ে তিনি বলেন, এ নাম চূড়ান্ত নয়। আর চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের কাছে এ নাম গ্রহণযোগ্যও নয়।

তিনি বলেন, ভাইরাসটির উৎপত্তি ২০১৯ সালে। এটি করোনাভাইরাস পরিবারের নতুন, তাই একে নভেল বলা হচ্ছে। সব মিলিয়ে উৎপত্তির সাল, নভেলের ‘এন’ ও করোনাভাইরাসের ‘কভ’ মিলিয়ে নাম দেয়া হয়েছে- ২০১৯ এনকভ।

এ বিষয়ে নাম ঠিক করা সদস্যদের একজন ভাইরোলজিস্ট অধ্যাপক বেঞ্জামিন নিউম্যান বিবিসি জানিয়েছেন, ‘দুই সপ্তাহ ধরে আলোচনার পর একটি নামের বিষয়ে নিয়ে ঐকমত্যে পৌঁছেছেন তারা। নামটি প্রকাশের জন্য একটি বিজ্ঞানভিত্তিক জার্নালে জমা দেয়া হয়েছে। বিষয়টি আরও পর্যালোচনার পর আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই ভাইরাসের নাম ঘোষণা করা হবে।’

ফই/জার/ফই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশ

আক্রান্ত
২৩৪৮৮৯
সুস্থ
১৩২৯৬০
মৃত্যু
৩০৮৩
সূত্র:আইইডিসিআর

বিশ্ব

আক্রান্ত
১৭২১২৮৫৩
সুস্থ
১০৭২৬২০১
মৃত্যু
৬৭০৯০৩
সূত্র: ওয়ার্ল্ড মিটার
এন্ড্রু কিশোরের সেরা ৫ গান
চোখে মুখে মৌমাছি নিয়ে চার ঘণ্টা!
বলিউড, মানসিক চাপ, আত্নহনন
দ্রুত ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে চায় বিল গেটস ফাউন্ডেশন