বাংলাদেশ, শীর্ষ খবর

‘কেবল গুরুতর রোগীদেরই যেনো হাসপাতালে আনা হয়’

করোনার বেগতিক পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খেতে থাকা চিকিৎসকরা বলছেন, যেনো কেবল গুরুতর রোগীদেরই হাসপাতালে আনা হয়।

কারণ, সবাইকে দেখভাল করা, এখন প্রায় অসম্ভব। তবে, অবস্থা এমন যে, গুরুতর রোগী নিয়েও ঘুরতে হচ্ছে, এক হাসপাতাল থেকে আরেক হাসপাতালে।

হাসপাতালের বাইরে অপেক্ষায় থাকা এই রোগীরা জানেন না, ভর্তি হতে পারবেন কি না। এভাবে রোগী নিয়ে একের পর এক অ্যাম্বুলেন্স আসে, আবার চলেও যায়। অধিকাংশ রোগীই ভর্তি হতে পারেন না। ছোটেন আরেক হাসপাতালে।

দিন দিন সংক্রমণ বেড়ে চলায় চাপ বাড়ছেই। হাসপাতালগুলোতে তাই হিমশিম দশা।

নানান চড়াই উতরাই পেরিয়ে যারা ভর্তি হতে পেরেছেন, তাদের কণ্ঠে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। কেউ সন্তুষ্ট, কেউ অসন্তুষ্ট।

চিকিৎসকরা বলছেন, এতো চাপ সামলানো প্রায় অসম্ভব। তাই, সবাই ভিড় না করে, যেনো কেবল গুরুতর রোগীদেরই হাসপাতালে আনা হয়।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও অসহায়ত্ব জানাচ্ছে। এমন অবস্থায়, রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে করোনা রোগীদের জন্য সাতশো থেকে আটশো শয্যা বাড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার।

জক/ফই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

হেঁচকি ওঠার কারণ ও কমানোর উপায়
মশা তাড়াতে যেসব উপকরণ ব্যবহার করা যায়
গ্রিন টির ভালো-মন্দ
পাহাড়ের ভাষা, সমতলের ভাষা