ফিচার , , , ,

দ্রুত ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে চায় বিল গেটস ফাউন্ডেশন

পুরো পৃথিবী এখন লড়াই করছে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে। তবে, এখনো মানুষ অসহায়। তৈরি হয়নি কোন প্রতিষেধক।

প্রতিষেধকের অভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানুষের মৃত্যু দেখতে চান না মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস।

খুব দ্রুত করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করে তা বিশ্বের-বিশেষ করে দরিদ্র দেশগুলোর কাছে পৌঁছাতে চান তিনি। এজন্য সবকটি দেশের গবেষণা সংস্থাগুলোকে কোটি কোটি প্রতিষেধকের ডোজ তৈরির আর্জি জানিয়েছেন তিনি। এমনকি ভ্যাকসিন তৈরির জন্য খরচও দিতে চায় তার ফাউন্ডেশন ।

বিল গেটস বলেছেন, ভবিষ্যতে করোনার সফল টিকা পাওয়া গেলে তা বিশ্বের সব মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। ‘বিল এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন’ করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করতে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন সংস্থাকে আর্থিক সাহায্য করছে ।

পেনসালিভানিয়ার বায়োটেক ফার্ম ইনোভিও ফার্মাসিউটিক্যালসের করোনা ভ্যাকসিন গবেষণার কাজে সব আর্থিক অনুদান দিয়েছেন ‘বিল এন্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন। গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন অ্যান্ড ইমিউনাইজেশনের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভ্যাকসিনের ডোজ পৌঁছে দেওয়ার জন্য আগাম পরিকল্পনাও নিয়ে রেখেছেন বিল গেটস। বিশ্বের কোন দেশ ভ্যাকসিনের গবেষণায় কতদূর এগোল তা জানতেও প্রতিনিয়ত নিচ্ছেন খোঁজ।

বিল গেটস জানান, এশিয়া, ইউরোপ, আমেরিকার বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে তাঁর ফাউন্ডেশন। বছরে ১০০ কোটি বা ২০০ কোটি ভ্যাকসিনের ডোজ তৈরি করা গেলে করোনা আক্রান্ত দেশগুলিতে দ্রুত সেই ডোজ পৌঁছে দেওয়া হবে।

গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন প্রোগ্রামের মাধ্যমে ভ্যাকসিনের ডোজ পৌঁছে দেওয়া হবে বিশ্বের অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল দেশগুলোতে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশ

আক্রান্ত
২৫৭৬০০
সুস্থ
১৪৮৩৭০
মৃত্যু
৩৩৯৯
সূত্র:আইইডিসিআর

বিশ্ব

আক্রান্ত
১৯৮২৪০৩৯
সুস্থ
১২৭৩২৫৪৬
মৃত্যু
৭২৯৯১০
সূত্র: ওয়ার্ল্ড মিটার
একজন জহির রায়হান
বৈরুত বিস্ফোরণের অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট কী পদার্থ?
এন্ড্রু কিশোরের সেরা ৫ গান
চোখে মুখে মৌমাছি নিয়ে চার ঘণ্টা!