34 C
Dhaka
বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪
spot_imgspot_img

গাজার শিশুদের ২৩ কোটি টাকা সহায়তা দিয়েছেন আইরিশ অভিনেত্রী

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর বর্বরতা চলমান রয়েছে। গত বছর থেকে এখন পর্যন্ত হামলায় প্রায় ৩৮ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ৭০ শতাংশই নারী ও শিশু। চলমান এই যুদ্ধে পরিবার হারিয়েছে প্রায় ২০ হাজার শিশু।

গাজার এসব অসহায় শিশুদের দিকে সহায়তার হাত বাড়িয়েছেন বিশ্বের অনেক তারকা। তারই মধ্যে একজন হলো জনপ্রিয় আইরিশ অভিনেত্রী নিকোলা কফলান।

পাকিস্তানি গণমাধ্যমের সূত্র অনুযায়ী, প্যালেস্টাইন চিলড্রেনস রিলিফ ফান্ডে (পিসিআরএফ) সংগ্রহ করা ২০ লাখ মার্কিন ডলার দিয়েছেন এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমান ২৩ কোটি ৪৬ লক্ষ টাকার বেশি।

এ কারণে পিসিআরএফ তার প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে।

সংস্থাটির এক্স হ্যান্ডেলে (টুইটার) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অবিশ্বাস্যভাবে ২০ লাখ মার্কিন ডলার সংগ্রহ এবং তা সরবরাহের জন্য ‘ব্রিজারটন’ তারকা অভিনেত্রী নিকোলা কফলানকে ধন্যবাদ। ইসরায়েলি বাহিনীর বর্বরোচিত এই হামলায় ত্রাণ, পুনরুদ্ধারের প্রচেষ্টা এবং শান্তির জন্য সমর্থনে অনুপ্রাণিত করা, বাস্তুচ্যুত শিশু ও দরিদ্র পরিবারগুলোর জন্য মানবিক সহায়তা এবং চিকিৎসায় ত্রাণ প্রদানের জন্য ধন্যবাদ।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, এই আইরিশ অভিনেত্রীর প্রচেষ্টা শুধু তহবিল সংগ্রহেই সীমাবদ্ধ নয়, বরং ফিলিস্তিনের পরিস্থিতি সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করতেও সাহায্য করেছে।

এক সাক্ষাৎকারে নিকোলা কফলান বলেছেন, ‘আমি আমার স্বপ্নের কাজ করছি এবং বিশ্ব ভ্রমণে যাচ্ছি। তবে বর্তমানে গাজার দক্ষিণের ছোট শহর রাফাতে কী ঘটছে, সেই সম্পর্কেও যথেষ্ট সচেতন আমি।’

নিকোলাকে বিভিন্ন সময় ফটোশ্যুটে এবং ‘ব্রিজারটন’-এর প্রচারণার সময় যুদ্ধবিরতি ও শিল্পীদের নিরাপত্তার প্রতীক ব্যাজ পরা অবস্থায় দেখা গেছে।

নেটফ্লিক্সের হিট সিরিজ ‘ব্রিজারটন’-এ পেনেলোপ ফেদারিংটন চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে পরিচিত লাভ করেন নিকোলো। তার বাবা মধ্যপ্রাচ্যে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা বাহিনীর যুদ্ধবিগ্রহ তদারকির সদস্য ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ৭০ দশকের শেষ দিকে জেরুজালেমে বসবাস করত অভিনেত্রীর পরিবার। মূলত এ কারণে অঞ্চলটির প্রতি গভীর টান নিকোলোর।

spot_img
spot_img

আরও পড়ুন

spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিশেষ প্রতিবেদন