বাংলাদেশ, নাগরিক সংবাদ, বিচিত্র বিশ্ব

চাঁদে যৌথভাবে ঘাঁটি গাড়তে যাচ্ছে রাশিয়া-চীন

মহাকাশ স্টেশন হয়েছে অনেক আগেই। এবার চাঁদে ঘাঁটি গাড়তে যাচ্ছে রাশিয়া ও চীন। একটি চুক্তিও সই করেছে দেশদুটি। এদিকে, তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী যুক্তরাষ্ট্রও বসে নেই। ২০২৪ সালে চাঁদের বুকে ফের মানুষ পাঠাতে যাচ্ছে দেশটি।

মানুষ নিয়ে রাশিয়া প্রথম মহাশূন্যে গিয়েছিলো সেই ছয় দশক আগে। তার ৬০ বছর পূর্তিতে, এবার এলো চাঁদে মহাকাশ স্টেশন বানানোর ঘোষণা। সঙ্গে পরাশক্তি মিত্র চীন। চুক্তিও সেরে ফেলেছে দুই দেশ। স্টেশনটি ব্যবহার করতে পারবে অন্যান্য দেশও।

এটি হবে আসলে গবেষণাগার। গড়ে তোলা হবে চাঁদের মাটিতে অথবা তার কক্ষপথে। সম্ভব হলে স্থলে, আকাশে- দুটি জায়গাতেই।

চাঁদের মাটিতে নানান ধরনের অনুসন্ধান চালানো হবে সেখান থেকে। কিভাবে পৃথিবীর এই উপগ্রহের ব্যবহার সম্ভব, চলবে তারও চেষ্টাচরিত্র।

মহাকাশে রাশিয়ার অগ্রযাত্রা অনেক আগে থেকেই। সে তুলনায় চীন অনেকটাই নবীন। কদিন আগেই, চাঁদের বুক থেকে মাটি আর পাথর নিয়ে ফিরেছে চীনের চ্যাং ফাইভ মিশন।

বিশ্ব অর্থনীতি ও রাজনীতিতে মূলত দুটি মেরু। একদিকে রাশিয়া-চীন, অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের ইউরোপীয় মিত্ররা। দুপক্ষের মহাশূন্য প্রতিযোগিতাও শুরু থেকেই।

এতোদিন রাশিয়ার উড়োযানে চড়েই, আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে যেতে হতো বিজ্ঞানীদের। গত বছর মার্কিন প্রতিষ্ঠান- স্পেসএক্সও সেই সক্ষমতা দেখিয়েছে। যাতে ভেঙেছে রাশিয়ার একাধিপত্য।

এদিকে, ২০২৪ সালে চাঁদে একজন নারী ও একজন পুরুষ পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র। প্রকল্পের নাম আর্টিমিস। সফল হলে, ১৯৭২ সালের পর, আবারো চাঁদের বুকে মার্কিনীদের পা পড়তে যাচ্ছে।

কলি/লিশা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

হেঁচকি ওঠার কারণ ও কমানোর উপায়
মশা তাড়াতে যেসব উপকরণ ব্যবহার করা যায়
গ্রিন টির ভালো-মন্দ
পাহাড়ের ভাষা, সমতলের ভাষা