আন্তর্জাতিক

সার্সের আঘাত ছাপিয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাসের প্রকোপ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে চীনে একদিনেই আরও ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যাদের ৮১ জনেই হুবেই প্রদেশের। করোনাভাইরাসে একদিনে এটাই সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যুর ঘটনা।

শনিবার দেশটির ন্যাশনাল হেলথ কমিশন জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭২২ জনে। চীনের হুবেই প্রদেশ ও বিভিন্ন এলাকায় এই পর্যন্ত ৩৪ হাজার ৫৪৬ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

দুই দশক আগে সার্স ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে মারা গিয়েছিলো ৭৭৪ জন। আশঙ্কা করা হচ্ছে, সার্সের আঘাত ছাপিয়ে যাচ্ছে করোনাভাইরাসের প্রকোপ।

চীনের বাইরেও বেড়ে চলেছে এ ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা। এর মধ্যে জাপানের কোয়ারেন্টাইনে রাখা প্রমোদতরীতে শুক্রবার আরও ৪১ ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার প্রমাণ মিলেছে। এ নিয়ে ওই জাহাজে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৬১ জনে।

চীনসহ বিশ্বের ২৮টি দেশ ও অঞ্চলে এ ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছে। এতে এ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন হংকং ও ফিলিপাইনের দুই নাগরিক।

এমন উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে জেনেভায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও) আগামী সপ্তাহে জরুরি বৈঠক ডেকেছে। ইতোমধ্যে গত সপ্তাহে বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে সংস্থাটি।

ডব্লিউএইচের নেতৃত্বে একটি বহুজাতিক প্রতিনিধি দল ‘খুব শিগগিরই’ চীনে যাচ্ছে বলে সংস্থাটি জানিয়েছে।

বিশ্বজুড়ে ভাইরাসটির সংক্রমণ ঠেকাতে ও আক্রান্ত দেশগুলোকে সহায়তার জন্যে ৬৭৫ মিলিয়ন ডলারের অর্থ তহবিল ঘটনের আহ্বান জানিয়েছেন সংস্থাটির মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম গেব্রিয়েসাস।

ফই/শাই/ফই

LIVE


নিজের মৃত্যু কামনা করছে শিশুটি!
যেভাবে বাড়াবেন আত্মবিশ্বাস
মিনি মাফলারম্যান ও একজন অরবিন্দ কেজরিওয়াল
টাটকা রাখুন মশলাপাতি