ফিচার , , ,

টুইন টাওয়ারের নবজন্ম

জাবের হাসান

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর। নিউইয়র্কের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার বা টুইন টাওয়ারে চালানো হয় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা। গুঁড়িয়ে যায় টাওয়ারগুলো। ভয়াবহ এই হামলায় প্রাণ হারান প্রায় তিন হাজার মানুষ। এই সন্ত্রাসী হামলাটি পরিচিত ‘নাইন-ইলেভেন’ নামে।
চলুন জেনে নেয়া যাক টুইন টাওয়ার নিয়ে কিছু চমকপ্রদ তথ্য,

উচ্চতা দেখে দাঁত কপাটি লেগে যেতে পারে

টাওয়ার দুটি ছিলো ১১০ তলা সমান উঁচু। যদিও উত্তর দিকের টাওয়ারটি দক্ষিণের টাওয়ারটির চাইতে ৬ ফুট বেশি উঁচু ছিলো।

২ লাখ টন লোহা ব্যবহার করা হয় টাওয়ারগুলো বানাতে। ব্যবহার করা হয় ২ লাখ ৫০ হাজার গ্যালন রঙ।

টুইন টাওয়ারে ছিলো ৪৩ হাজার ৬০০টি জানালা, ২৩৯ তি লিফট, ৭১টি চলন্ত সিঁড়ি, ২ হাজার পার্কিং স্পেস।

এতো এতো সংখ্যা আপনার মাথায় জট পাকিয়ে দিবে।

১৯৯৩ সালেও হামলা হয়েছিলো

১৯৯৩ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি সেদিন ছিলো শুক্রবার। দুপুরে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের পার্কিং এ বিস্ফোরিত হয়েছিলো একটি বোমা। সেদিনের হামলায় নিহত হয়েছিলেন ৬ জন এবং আহত হয়েছিলেন প্রায় ১ হাজার মানুষ।

১৯৯৮ সালে একবার ডাকাতিও হয়েছিলো টাওয়ারে।

বিখ্যাত রকফেলার পরিবার

টুইন টাওয়ার তৈরি করার ভাবনাটি ছিলো মূলত যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত ব্যবসায়ী জন ডি রকফেলারের প্রপৌত্র ডেভিডের। যিনি ছিলেন সে সময়ের রকফেলার পরিবারের সবচেয়ে প্রবীণ ব্যক্তি।  তিনি চেয়েছিলেন নিউ ইয়র্কে নির্দিষ্ট একটি জায়গাকে ভিত্তি করে একটি বাণিজ্য কেন্দ্র তৈরি করতে।

ছবি: AP

বিল্ডিংটি তৈরির ক্ষেত্রে ঝুঁকি ছিলো

১০ হাজার লোক প্রতিদিন কাজ করেছিলো বিশাল টাওয়ার দুটি তৈরি করতে। কাজ চলাকালীন সময়ে নিহত হয়েছিলেন ৬০ জন।

৬০ এর দশকে টাওয়ারগুলোর নকশা ছিলো বৈপ্লবিক এবং তৈরির ক্ষেত্রে বেশ ঝুঁকিই নিয়েছিলেন নির্মাতারা।

টুইন টাওয়ারে ১৭টি শিশু জন্মগ্রহণ করেছিলো…

নির্মাণের সময় শ্রমিকরা প্রতিদিন ৮৭ টন খাবার এবং ৩০ হাজার কাপ কফি খেয়েছিলো।

১.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ হয় টাওয়ার দুটি নির্মাণ করতে।

উত্তরের টাওয়ারটি এক বছর আগেই তৈরি হয়ে যায়

১৯৭০ সালের ডিসেম্বরে উত্তরের টাওয়ারটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়। যেখানে দক্ষিণের টাওয়ারটির নির্মাণ শেষ হয় ১৯৭১ সালে।

কাজ শুরুর সময় থেকে শেষ হওয়া পর্যন্ত মোট ৮ বছর সময় লাগে টাওয়ার দুটি তৈরি করতে এবং ১৯৭৩ সালের ৪ এপ্রিল টাওয়ারগুলো উদ্বোধন করা হয়।

১.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ হয় টাওয়ার দুটি নির্মাণ করতে।

তারের উপর হেঁটে টুইন টাওয়ার জয়

১৯৭৪ সালের ৭ আগস্ট টাওয়ার দুটিতে তার বেঁধে  হেঁটে পার হয়েছিলেন ফরাসী নাগরিক ফিলিপ পেতি।

 

ছবি: AP

টুইন টাওয়ারের নবজন্ম

ধ্বংস হয়ে যাওয়া টাওয়ারের জায়গায় ১০৭৯ ফুট উচ্চতার একটি ভবন নির্মিত হয়েছে। যা ২০১৮ সালের ১১ জুন খুলে দেয়া হয়। এটি বর্তমানে নিউয়র্কের ৫ম সর্বোচ্চ উচ্চতার ভবন।

ভবনের উপরে একটি পুল তৈরি করা হয়েছে ১১ সেপ্টেম্বরকে স্মরণে রেখে এবং পুলের আশেপাশে কয়েক শত ওক গাছ লাগানো হয়েছে টুইন টাওয়ারের নতুন জন্মের প্রতিকী অর্থে।

LIVE
Play
ছাত্র সংগঠনগুলোর আয়ের উৎস কী?
হলুদের গুণাগুণ
ভয়ঙ্কর গ্যাস এসএফ-সিক্স
বোকা পাখি ডোডো