ফিচার

তবুও স্বপ্ন দেখে যাই

রাহিদ রনি

স্বপ্ন হয়তো আকাশে মেঘের ভিড়ে মিলিয়ে থাকে। কখন উঁকি দেবে আর কখন মিলিয়ে যাবে, বোধকরি কেউ তা জানে না। তবুও মানুষ আশায় বাঁচে, এই বুঝি দেখা দিলো স্বপ্ন।

 

রোদ উঠলে স্বচ্ছ আকাশে দেখা যায় সেই স্বপ্নকে। বাংলাদেশে চায়ের স্টল থেকে বুক স্টল, অজ্ঞ-বিদ্যান সবারই আগ্রহ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ কি করে বা করবে! দুই ম্যাচে জিততেই হবে মাশরাফী-সাকিবদের। তা কি অসম্ভব? এই প্রশ্ন-ই সামনে আসছে বারবার।

 

বাস্তব জমিনে পা রেখে চোখ শক্ত করে কেউ কেউ বলে দিচ্ছেন ‘এ অসম্ভব।‘ ভারত তেঁতে আছে আর পাকিস্তান তো সেরা ছন্দে খেলছে। তা হলে কি করে হবে?

 

 

আমরা ক্রিকেট পাগল। উন্মাদের সব সুগুণ আর কুগুণ আমাদের অস্থিমজ্জায়। আবেগে ভাসি, আবেগে অঘটন ঘটাই, আবেগে ক্রিকেটারদের গুষ্টি উদ্ধ্বার করে ছাড়ি। আসল কথা হচ্ছে, বাংলাদেশ কি সেরাটা খেলবে?

 

মাশরাফীর ছন্দে ফেরাটা জরুরি, তামিম-সৌম্যর বড় ইনিংস দরকার, সাকিবের পর মুশফিকের ধারাবাহিকতা রক্ষা করা আবশ্যক আর অতি গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে মুস্তাফিজ-সাইফ উদ্দিনের দুর্ধর্ষ একটা স্পেল। হ্যা, তাহলে জিতে যায় বাংলাদেশ!

 

প্রতিপক্ষ কে আর তারা কতোটা শক্তিশালী, এটা নিশ্চয়ই ভাবছে না টাইগাররা। নিজেদের দিনে ম্যাচের সেরা খেলাটা খেলুক, ক্রিকেট ভক্তদের সাথে এই প্রত্যাশা মিলুক। পরিসংখ্যান, কাগজে-কলমের দুই লাইনের হিসাব এদিন তুচ্ছ।

 

যেদিন গর্জে ওঠে বাংলাদেশ, সেদিন তুচ্ছ হয়ে ওঠে প্রতিপক্ষের শত আক্রমণ আর চেষ্টা।

 

লেখক: গণমাধ্যম কর্মী

LIVE
Play
ছাত্র সংগঠনগুলোর আয়ের উৎস কী?
হলুদের গুণাগুণ
ভয়ঙ্কর গ্যাস এসএফ-সিক্স
বোকা পাখি ডোডো