বাংলাদেশ, শীর্ষ খবর

নাগরিকের ক্যামেরায় এক বছরে স্বাস্ব্যখাত

করোনা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিলো স্বাস্ব্যখাতের ভঙ্গুর দশা। স্বল্প কিছু দেশে সফলভাবে করোনা মোকাবিলা করলেও বেশির ভাগ দেশেকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। দেশের ভ্যাকসিন ব্যবস্থাপনায় সরকার সফল হলেও স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি সরকারকে সমালোচনায় ফেলে।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে সনাক্ত হয় প্রথম করোনা রোগী। সেদিন তিনজনের করোনা শনাক্তের কথা জানানো হয়, যাঁদের দুজন ইতালিপ্রবাসী আর একজন প্রবাসী পরিবারের সদস্য। 

দেশে প্রথম করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ। ২১ ও ২২ মার্চ মৃত্যু আরো দুই জনের। এমন পরিস্থিতিতে চীনের উহানের অভিজ্ঞতা নিয়ে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

ততদিনে, করোনাভাইরাস সংক্রমণের উৎসে পরিণত হয় নারায়ণগঞ্জ। ৮ এপ্রিল রাজধানীর পাশের এই জেলাকে লকডাউন করা হয়। তবে, লকডাউনের মধ্যেই বিভিন্ন জেলায় যাতায়াত করে শত শত মানুষ।

এমন বাস্তবতায় সংক্রমণ ঠেকাতে গত ২৬ মার্চ থেকে সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে মোতায়েন করা হয় সেনাবাহিনী। সাত দফায় ছুটি বাড়িয়ে ৬৬ দিন পর ৩১ মে সীমিত আকারে খুলে দেয়া হয় অফিস।

নানা সমালোচনার আগুনে ঘি ঢেলে দেয় জেকেজি ও রিজেন্ট হাসপাতালের ভুয়া রিপোর্ট। আইনের আওতায় আনা হয় রিজেন্টের ব্যবস্থাপক সাহেদ, জেকেজির চেয়ারম্যন সাবরিনা ও তার স্বামী আরিফকে।

অভিযোগের তীর ছোড়া হয় খোদ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দিকে। মন্ত্রী পার পেয়ে গেলেও বড় দুই কেলেঙ্কারির কারণে পদ হারাতে হয় স্বাস্থ্যের তৎকালিন ডিজিকে।

এতোকিছুর মাঝেও আশার আলো হিসেবে ধরা দেয় এস্ট্রাজেনেকার কোভিড ভ্যাকসিন। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশে শুরু হয় করোনা টিকাদান। শুরুতে নানা আশঙ্কা থাকলেও নাগরিকরা এখন করোনা টিকা নিচ্ছেন নির্ভয়ে।

করোনার থাবায় বৈশ্বিক অর্থনীতিতে মন্দা দেখা দিলেও ব্যতিক্রম বাংলাদেশ। উর্ধ্বমুখি প্রবৃদ্ধি।

বিভিন্ন খাতের বিশ্লেষকরা বলছেন, করোনা মহামারি মোকাবেলায় দরকার সঠিক পরিকল্পনা প্রনয়ন ও তার বাস্তবায়ন।

আহো/ফই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

হেঁচকি ওঠার কারণ ও কমানোর উপায়
মশা তাড়াতে যেসব উপকরণ ব্যবহার করা যায়
গ্রিন টির ভালো-মন্দ
পাহাড়ের ভাষা, সমতলের ভাষা