বাংলাদেশ, শীর্ষ খবর

নারীকে ডেকে এনে এসিডে ঝলসে দেয়ার অভিযোগ

একান্তে সাক্ষাৎ না করায় মেলেনি ন্যায় বিচার। উল্টো ডেকে নিয়ে আসামীদের দিয়েই এসিডে ঝলসে দেয়া হলো এক নারীকে। হাসপাতালের রিপোর্টে এসিডে ঝলসে দেয়ার প্রমাণ মিললেও চূড়ান্ত প্রতিবেদনে পুলিশ জানিয়েছে অভিযোগ মিথ্যে।

গত প্রায় সাত মাস ধরে জীবনের ভয়ে পালিয়ে বেড়ানো মুক্তিয়োদ্ধার সন্তান ঐ নারী এসব তথ্য জানান এক সংবাদ সম্মেলনে। এদিকে অভিযুক্ত পুলিশ কর্তারা মুঠো ফোনে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন।

শরীর জুড়েই পোড়া ক্ষত চিহ্ন বয়ে বেড়াচ্ছেন এই নারী। তবে এক সময় এমনটা ছিল না।
সন্তান জন্ম দিতে না পারায় স্বামীর পরিবারের কাছে তিনি পরিণত হন অচ্ছুতে।

তাই স্বামী নিজেই টাকা দেন বাবার বাড়িতে শেষ বয়সে মাথা গোঁজার ঠাঁই গড়তে।
সেই টাকা লগ্নি করেন পৈত্রিক এলাকায়। কেনেন জমি আর পুকুর। ধানের বীজ আর চারাও কেনেন মুনাফার আশায়।

সেই বিনিয়োগ করা টাকা নিয়ে বিপাকে পড়ে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার দ্বারস্থ হন ঐ নারী। এরপরই বিপত্তির শুরু। দ্বিতীয় দফায় হাজির হন আরো বড় কর্তার দরবারে, সেখানেও একই প্রস্তাবের অভিযোগ।

সামাজিকভাবে চরিত্রহীনা প্রমাণের হুমকির পরও নত না হওয়া এই নারীর শেষ রক্ষা হয়নি। ঘটনাস্থলে উপস্থিতরা জানান সেদিনের কথা।

অভিযোগের বিষয়ে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে, একজন দগ্ধ হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন। যদিও পরে ভোল পাল্টান দুজনই। হাসপাতালের কাগজ বলছে ঘটনা সত্য।

পুলিশের চূড়ান্ত প্রতিবেদন মিথ্যে বলছে হাসপাতালের কাগজ। মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান দাবিদার এই নারী জানেন না ঠিক কোথায় গেলে মিলবে সুষ্ঠু বিচার। তার জানা নেই আর কতদিন এভাবেই পালিয়ে বেড়াতে হবে তাকে?

মাজারুল ইসলাম/ফই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

হেঁচকি ওঠার কারণ ও কমানোর উপায়
মশা তাড়াতে যেসব উপকরণ ব্যবহার করা যায়
গ্রিন টির ভালো-মন্দ
পাহাড়ের ভাষা, সমতলের ভাষা