বাংলাদেশ , ,

নারীর প্রতি সহিংসতা বাড়ছেই

নারীর প্রতি সহিংসতা বাড়ছেই। যৌন নির্যাতন ও হত্যাসহ পারিবারিক সহিংসতা থেকে মুক্তি মিলছে না নারীর। রেহাই পাচ্ছেনা কন্যা শিশুও। বিভিন্ন পরিসংখ্যান বলছে গত পাঁচ বছরে যৌন নির্যাতনের সংখ্যা সাড়ে চার হাজারেরও বেশি। যৌন নির্যাতনের পর হত্যার সংখ্যা বেড়েছে আশঙ্কাজনক হারে।

২০১৭ সালে যৌন নির্যাতনসহ নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে মোট ১ হাজার ৭৩৭টি। ২০১৬ সালে এ সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৪৫৩। এটি শুধুমাত্র গণমাধ্যমে উঠে আসা চিত্র। বাস্তবতা আরো ভয়াবহ।

দেশে যে হারে যৌন নির্যাতনের পর হত্যার ঘটনা ঘটছে, তার সবক্ষেত্রেই মামলা হয় না। আবার মামলা হলেও ভয় বা টাকার বিনিময়ে আপোস হয় আসামিপক্ষের সঙ্গে। এধরণের বিভিন্ন ঘটনায় বেশির ভাগ মামলার পরিণতিও সস্তোষজনক নয় বলে মনে করেন মানাবাধিকার আইনজীবী সালমা আলী।

১৪টি দৈনিক পত্রিকা থেকে সংগৃহীত তথ্য দিয়ে বিএনডব্লিউএলএ জানিয়েছে, ২০১০ সাল থেকে ২০১৭ পর্যন্ত ধর্ষণের চেষ্টা, ধর্ষণ, গণধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যা ও ধর্ষণের পর আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে ৪ হাজার ৪২৭টি। এর মধ্যে মামলা দায়ের করা হয়েছে ২ হাজার ৭৩৪টি। গত ছয় বছরে ধর্ষণের পর ৫০৮ নারীকে হত্যা করা হয়েছে। তবে হত্যা করার পরও সব পরিবার মামলা বা আইনি আশ্রয় নেয়নি। এর মধ্যে মামলা হয়েছে মাত্র ২৮০টি ঘটনায়। আর ধর্ষণের পর আত্মহত্যা করেছেন ১৬৮ নারী এবং মামলা হয়েছে মাত্র ১১৩টি।

জাআ//মাও

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশ

আক্রান্ত
২৫৭৬০০
সুস্থ
১৪৮৩৭০
মৃত্যু
৩৩৯৯
সূত্র:আইইডিসিআর

বিশ্ব

আক্রান্ত
১৯৮২৪০৩৯
সুস্থ
১২৭৩২৫৪৬
মৃত্যু
৭২৯৯১০
সূত্র: ওয়ার্ল্ড মিটার
একজন জহির রায়হান
বৈরুত বিস্ফোরণের অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট কী পদার্থ?
এন্ড্রু কিশোরের সেরা ৫ গান
চোখে মুখে মৌমাছি নিয়ে চার ঘণ্টা!