চট্টগ্রামে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। নগরের দামপাড়া এলাকার এক বৃদ্ধ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ♦♦ দেশে আরও ৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা বেড়ে ৬১ জন হলো। ♦♦ ইনডিপেনডেন্টের এক কর্মী করোনা ভাইরাস বা ‘কোভিড–১৯’–এ আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসায় ওই টেলিভিশনের ৪৭ জনকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। ♦♦ করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় উন্নয়নশীল দেশগুলোকে জরুরি স্বাস্থ্য সহযোগিতা ও শক্তিশালী করার ১৯০ কোটি ডলার ঋণ সহযোগিতা দেবে বিশ্ব ব্যাংক ♦♦ নারায়ণগঞ্জের বন্দরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক নারীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর রসুলবাগ এলাকার একাংশ লকডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন ♦♦ করোনা উপসর্গ দেখা দিলে অথবা করোনা বিষয়ক জরুরি স্বাস্থ্যসেবা পেতে ৩৩৩ অথবা ১৬২৬৩ নম্বরে কল করুন এবং তথ্য পেতে www.corona.gov.bd ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।। এ ছাড়া আইইডিসিআরের ইমেইল বা ১৬২৬৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। ♦♦ www.livecoronatest.com এ আপনি ঘরে বসেই কোভিড-১৯ বা নভেল করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত কি'না, তা নিজেই মূল্যায়ন করতে পারবেন। এমনকি আপনার ঝুঁকির মাত্রা ও করনীয় সম্পর্কেও জানতে পারবেন।

বাংলাদেশ, শীর্ষ খবর

পিলখানা হত্যাকাণ্ডের ১১ বছর আজ

আজ ২৫ ফেব্রুয়ারি (মঙ্গলবার)। বহুল আলোচিত বিডিআর বিদ্রোহ ও হত্যাকাণ্ডের ১১ বছর। ২০০৯ সালের আজকের এ দিনে রাজধানীর পিলখানায় তৎকালীন বিডিআর সদরদপ্তরে কিছু বিপথগামী জোয়ানের হাতে প্রাণ হারান ৫৭ সেনা কর্মকর্তা।

এ ঘটনায় হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে মামলা করা হয়। মামলার দুই ধাপ বিচার শেষ হয়েছে বিচারিক আদালত ও হাইকোর্টে। এখন বাকি আপিল বিভাগের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

দেড় মাস আগে হাইকোর্ট ২৯ হাজার ৫৬ পৃষ্ঠার একটি পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করে। ২০১৩ সালে রাজধানীর বকশিবাজারে বিশেষ আদালতে ১৫২ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ২৫৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়।

বিডিআর বিদ্রোহ ও হত্যাকাণ্ডের পর ২০০৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি পুলিশ বাদি হয়ে লালবাগ থানায় হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দুটি মামলা করে। পরে মামলাটি নিউমার্কেট থানায় স্থানান্তর করা হয়।

পিলখানার বিডিআর হত্যা মামলার ২৯ হাজার পৃষ্ঠার রায় নিয়ে বিপাকে আসামি ও রাষ্ট্রপক্ষ। আসামিপক্ষ বলছে, আপিল করতে গেলে প্রত্যেক আসামির খরচ হবে ২২ লাখ টাকা করে।

বিষয়টি স্বীকার করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, অচলাবস্থা নিরসনে প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ দরকার। এছাড়া, ধীরগতিতে চলছে বিস্ফোরক আইনের মামলার কার্যক্রম।

পিলখানার বিডিআর হত্যা মামলায় ১৩৯ জনের মৃত্যুদণ্ড, ১৮৫ জনের যাবজ্জীবনসহ ৫৫২ জনকে সাজা দিয়ে ২৯ হাজার ৫৯ পৃষ্টার রায় দেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত। বিশ্বের ইতিহাসে এতো পৃষ্টার রায় এটিই প্রথম।

এ রায় নিয়ে এখন বিপাকে রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষ। আসামিপক্ষ বলছেন, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে প্রত্যেক আসামিকে গুণতে হবে প্রায় ২২ লাখ টাকা যা তাদের পক্ষে অসম্ভব।

বিষয়টি স্বীকার করে খোদ অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, অচলাবস্থা নিরসনে প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ চাইবেন তিনি।

হত্যা মামলার যখন এ অবস্থা তখন বিস্ফোরক আইনের অপর মামলা চলছে কচ্ছপ গতিতে। ১১ বছরে সাক্ষী হয়েছে মাত্র ১৪৫ জনের। ফলে হত্যা মামলা থেকে ২৫০ জনের বেশি খালাস পেলেও এ মামলার কারণে বের হতে পারছে না তারা।

২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন বিডিআর সদর দপ্তর পিলখানায় বিদ্রোহের নামে হত্যা করা হয় ৫৭ সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৪ জনকে।

ফই/সাহু/ফই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৬১
সুস্থ
২৬
মৃত্যু
সূত্র:আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
১০৬৮০৫৩
সুস্থ
২২৬০৩৯
মৃত্যু
৫৬৭৭০
সূত্র: ওয়ার্ল্ড মিটার
করোনা মোকাবিলায় কানাডা
বিসিজি টিকা হতে পারে করোনার হাতিয়ার
করোনা আতঙ্কে মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখবেন যেভাবে
গাছের ওপর ৭ তরুণের কোয়ারেন্টিন!