বাংলাদেশ, শীর্ষ খবর

পেঁয়াজের দাম বাড়লো কেনো? কে জানে?

বাড়তি দামে ভারতীয় পেঁয়াজ দেশে আসার আগেই বাজারে শুরু হয়েছে অস্থিরতা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে পাইকারি বাজারে দাম বেড়েছে কেজিতে ১৫ থেকে ২০ টাকা। খুচরা পর্যায়ে পেঁয়াজের দাম ৭০ টাকা কেজি ছাড়িয়েছে। এজন্য সরবরাহ সংকটকে দুষছেন শ্যামবাজার ও কারওয়ান বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ীরা। চাহিদার তুলনায় উদ্বৃত্ত থাকার পরও কেন সরবরাহ ঘাটতি সেই সদুত্তর ছিল না তাদের কাছে। বিস্তারিত জানাচ্ছেন ফরহাদ হোসেন।

চাহিদা মেটাতে পেঁয়াজের বড় একটি অংশ ভারত থেকে আমদানি হয়। সম্প্রতি ভারতে বন্যায় ফলন ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় পেঁয়াজ রপ্তানি নিরুৎসাহিত করতে দ্বিগুণের বেশি বাড়িয়ে রপ্তানিমূল্য ঠিক করা হয়েছে টন প্রতি সাড়ে ৮’শ ডলার। নতুন দামে কেনা পেঁয়াজ এখনো বাংলাদেশের বাজারে না আসলেও দাম বাড়ছে হুহু করে। ভারতীয় পেঁয়াজের পাশাপাশি সরবরাহ সংকটের কথা তুলে ধরে বাড়ানো হয়েছে দেশী পেঁয়াজের দামও।

সরকারি সংস্থার হিসেব বলছে, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ২৩ লাখ টনের বেশি পেঁয়াজ উৎপাদিত হয়েছে। একই সময়ে আমদানি হয়েছে ১০ লাখ টনের মত। সব মিলিয়ে পেঁয়াজের সরবরাহ কম বেশি ৩৪ লাখ টন। একই সময়ে চাহিদা ধরা হয়েছে ২৪ লাখ টনের মত। হিসেব বলছে, অতিরিক্ত ১০ লাখ টন পেঁয়াজ থাকার কথা। তারপরও বাড়িত দামের লাগাম টানা যাচ্ছে না কেন?

বাজার স্থিতিশীল রাখতে আমদানি করা পেঁয়াজ বন্দর থেকে দ্রুত খালাস করা, নজরদারি বাড়ানো ও টিসিরি মাধ্যমে খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাণিজ্যমন্ত্রণালয়।

LIVE
Play
গাণিতিকভাবে সবচেয়ে নিখুঁত সুন্দরী বেলা হাদিদ!
স্পেনের জানা-অজানা
টিকটকের মধুবালা
ফোর্বসের তালিকায় ২০১৯ সালে ভারতের শীর্ষ ধনী