বাংলাদেশ

বাজারে এবার সব ধরনের মুরগির দামে নৈরাজ্য

প্রোটিনের চাহিদা পূরণে মুরগির মাংস খাবেন? সেখানেও এবার নৈরাজ্য। বাজারে যেনো আগুন। সব ধরনের মুরগির দামই লাগামহীন। ব্যবসায়ীরা বলছেন, হঠাৎ সরবরাহ কমায়, বাজার গরম। আর ভোক্তার প্রশ্ন- এতো দামে প্রোটিনের ন্যূনতম চাহিদা পূরণ, কিভাবে সম্ভব?

সুলতানা হক। সকালেই কারওয়ান বাজারে। পরিবারের বাজার করেন এখান থেকেই। পেশাজীবী এ নারীর পরিবারে মাসে ১০টি মুরগি দরকার।

কিন্তু, বাজারে এসে হতাশ এই নারী। বলছেন, প্রোটিনের চাহিদা মেটাতে, তাকে ব্যয় কমাতে হবে অন্য খাতে। তার মতো আরও অনেকেরই একই দশা।

বাজারে ব্রয়লারের দাম বেড়েছে কেজিতে ৩০ থেকে ৪০ টাকা। দেশি মুরগিতে বাড়তি ৪০ থেকে ৫০ টাকা। সমান তালে উর্ধ্বগতি পাকিস্তানি মুরগির দামেও।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরবরাহ কম। অনেকেই গুটিয়ে নিয়েছে, তাদের ছোট ছোট খামার।

সরকারের হিসাবে, দেশে বছরে মাংসের চাহিদা ৭৬ লাখ টন। সবল থাকতে একজন মানুষের দিনে গড়ে ১২০ গ্রাম মাংসের দরকার। যার বড় জোগান মুরগি।

সাআ/ফই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

গ্রিন টির ভালো-মন্দ
পাহাড়ের ভাষা, সমতলের ভাষা
স্যানিটাইজার ব্যবহারে বাড়ছে শিশুদের চোখের সমস্যা
অনলাইন আড্ডায় রুবানা হক