20 C
Dhaka
শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪
শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪

দিনাজপুরে নিরাপদ সবজি-ফলমূলে গড়ে উঠেছে পুষ্টি গ্রাম

বিশেষ সংবাদ

- Advertisement -

আবুল কাশেম, দিনাজপুর প্রতিনিধি:
দিনাজপুরের বিরলে নিরাপদ উপায়ে সবজি, ফল, ভেষজ ও মসলা উৎপাদন করে গড়ে তোলা হয়েছে “পুষ্টি গ্রাম”। প্রায় ৮০টি পরিবার এই সকল বাগান থেকে তাদের প্রতিদিনের সবজি ও ফলের চাহিদা পূরণ করছে। পাশাপাশি বিষ ও রাসায়নিক সারমুক্ত সবজি চাষ করে পরিবারের সদস্যদের খাওয়াতে পারছে। শুধু তাই নয় এই সবজি বাগান থেকে সবজি বিক্রি করে বাড়তি আয় হচ্ছে। এদিকে স্থানীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে সব ধরনের পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে।

কৃষিতে সমৃদ্ধ জেলা দিনাজপুর। ধান লিচুসহ নানান ফসলের জন্য বিখ্যাত এই জেলা। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে বিরল উপজেলার ধামইর ইউনিয়নের গিরিধরপুর গ্রামের কৃষকরা পতিত জমিতে নিরাপদ সবজি, ফল, ভেষজ ও মসলা জাতীয় ফসল চাষ শুরু করে। ঐ গ্রামের নাম দেয়া হয়েছে পুষ্টি গ্রাম। বাড়ির পাশে ও উঠানে শোভা পাচ্ছে লাউ, মিষ্টিকুমড়া, শিম, পেঁয়াজ, রসুনসহ নানা ধরনের শাক সবজি ও বিভিন্ন ফলের বাগান। এই গ্রামের ৭৮টি পরিবারের নারী-পুরুষ একসাথে শ্রম দিচ্ছেন এবং এই বাগান থেকে রাসায়নিক সার ও বিষমুক্ত নিরাপদ সবজি উৎপাদন করছেন। তাই কৃষকরা নিজেদের বাড়ির চাহিদা মিটিয়ে সবজি বাজারে বিক্রি করে বাড়তি আয় করছে। পাশাপাশি পুষ্টি গ্রামের অসচ্ছ্বল পরিবারগুলোর নিরাপদ সবজি বিক্রির জন্য স্থানীয় কৃষি অফিস উপহার দিচ্ছে প্যাডেল ভ্যান। এদিকে, কৃষকদের পতিত জমি ব্যবহার ও সবজি চাষে বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করছে স্থানীয় কৃষি অফিস। এছাড়াও বাড়ির সবাইকে প্রশিক্ষণ ও উঠান বৈঠকের মাধ্যমে সবজি চাষে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

কৃষকদের সকল চারা, জৈবসারসহ সকল কৃষি উপকরণ কৃষি অফিস সরবরাহ করছে। পুষ্টি গ্রামের মূল উদ্দেশ্য নিরাপদ সবজি উৎপাদন ও বাড়ির ছোট-বড় সবাইকে একসাথে বাগান পরিচর্যায় ব্যস্ত রাখা। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারে বলে জানালেন এই কৃষি কর্মকর্তা। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর দিনাজপুর জেলার বিরল, বোচাগঞ্জ ও চিরিরবন্দর- এই তিনটি উপজেলায় “পুষ্টি গ্রাম” প্রকল্পটি শুরু করে প্রায় ২ মাস আগে।

- Advertisement -
- Advertisement -

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বাধিক পঠিত