অর্থনীতি, আলোচিত

বিশ্বের সবচেয়ে দামী প্রতিষ্ঠান কোনটি?

আলী নাসিক আইমান

অ্যাপল, গুগল, মাইক্রোসফট, কোকাকোলা, ম্যাকডোনাল্ডস্-এর মতো প্রতিষ্ঠানের নাম জানেন না, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে প্রতিযোগিতাও কিন্তু কম নয়। ব্যবসায়ী আর বিনিয়োগকারীরাও নিয়মিত চোখ রাখেন তাদের আর্থিক অবস্থার উপর। আর বোঝার চেষ্টা করেন যে ব্যবসার ভবিষ্যৎ কোন দিকে যাচ্ছে।

 

গত ১২ বছর ধরে অ্যাপল ও গুগল পালাক্রমে সবচেয়ে দামী ব্র্যান্ডের খেতাবটি ধরে রেখেছিল। কিন্তু সেই অবস্থা ভেঙে সম্প্রতি অ্যামাজন হয়ে ‍উঠেছে পৃথিবীর সবচেয়ে দামী ব্র্যান্ড। আন্তর্জাতিক গবেষণা সংস্থা ‘ক্যানটার’ (Kantar)- এর গবেষণায় উঠে এসেছে এমন তথ্য। তাদের গবেষণার ওপর ভিত্তি করে ‘ব্র্যান্ডজ’ (BrandZ) সবচেয়ে দামী প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকা প্রকাশ করে। এই তালিকা অনুযায়ী অ্যামাজনের বর্তমান মূল্যমান ৩১৫.৫ বিলিয়ন ডলার। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২৬ লাখ ৭৩ হাজার ৪৫০ কোটি টাকারও বেশি। অর্থাৎ বাংলাদেশের সদ্য প্রস্তাবিত বাজেটের ৫ গুণেরও বেশি মূল্য অ্যামাজনের।

 

অ্যামাজনের মূল্যমান গত বছরের তুলনায় ৫২ শতাংশ বেড়েছে। মাত্র এক বছরেই এর মূল্য বেড়েছে ১০৮ বিলিয়ন ডলার। গত বছর শীর্ষে থাকা অ্যাপল, এ বছর ৩০৯.৫ বিলিয়ন ডলার দাম নিয়ে রয়েছে দ্বিতীয় অবস্থানে। আর গুগল তৃতীয় অবস্থানে ৩০৯ বিলিয়ন ডলার নিয়ে।

 

অ্যামাজন তাদের প্রচলিত ব্যবসার বাইরে অন্যান্য খাতেও ভারী বিনিয়োগ করছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে তারা স্ব-চালিত গাড়ি ‘অরোরা’ এবং ইলেকট্রিক ট্রাক প্রস্তুতকারক ‘রিভিয়ান’ এ অনেক বিনিয়োগ করে। তাছাড়াও ‘অ্যামাজন এয়ার’ নামে তাদের এয়ারলাইনস ব্যবসার সম্প্রসারণেও বিনিয়োগ করে প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৮ সালে তারা ৭৫৩ মিলিয়ন ডলারে অনলাইনভিত্তিক ফার্মেসি ‘পিলপ্যাক’ কিনে নেয়। ২০১৯ এর মে মাসে খাবার ডেলিভারি কোম্পানি ‘ডেলিভারু’তেও বিনিয়োগ করে অ্যামাজন।

 

অ্যামাজন, অ্যাপল ও গুগল ছাড়াও এ বছর ভিসা, আলীবাবা ও ম্যাকডোনাল্ডসের মতো প্রতিষ্ঠানগুলোও তাদের অবস্থান সবচেয়ে দামী কোম্পানীর তালিকায় ধরে রেখেছে। ব্র্যান্ডজ এর তালিকার জন্য বিবেচিত হতে অবশ্যই পাবলিক কোম্পানী হতে হয় অথবা নিজেদের আর্থিক স্থিতি প্রকাশ করতে হয়। কোম্পানীর বিভিন্ন দিক বিবেচনার পাশাপাশি প্রায় ৩০ লাখ ভোক্তার সাথেও কথা বলা হয়।

 

২০১৯ এর সবচেয়ে দামী ব্র্যান্ড:

 

১. অ্যামাজন (Amazon) ৩১৫.৫ বিলিয়ন ডলার

২. অ্যাপল (Apple) ৩০৯.৫ বিলিয়ন ডলার

৩. গুগল (Google) ৩০৯ বিলিয়ন ডলার

৪. মাইক্রোসফট (Microsoft) ২৫১.২ বিলিয়ন ডলার

৫. ভিসা (Visa) ১৭৭.৯ বিলিয়ন ডলার

৬. ফেসবুক (Facebook) ১৫৯ বিলিয়ন ডলার

৭. আলীবাবা (Alibaba) ১৩১.২ বিলিয়ন ডলার

৮. টেনসেন্ট (Tencent) ১৩০.৯ বিলিয়ন ডলার

৯. ম্যাকডোনাল্ডস (McDonald’s) ১৩০.৪ বিলিয়ন ডলার

১০. এ টি এ্যান্ড টি (AT&T) ১০৮.৪ বিলিয়ন ডলার

 

শাই/মাও
LIVE
বুনোপ্রাণীর দেশ গাম্বিয়া
অভিবাসন প্রত্যাশীদের নিয়ে অভিনব প্রতারণা
কলার দাম ১ কোটি ১ লাখ ৭৬ হাজার টাকা!
বিশ্বের কয়েকটি নান্দনিক সড়ক