বাংলাদেশ, শীর্ষ খবর

‘বুয়েট চাইলে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শিক্ষার্থীরাই সব আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকায় থাকে। আমিও ছাত্ররাজনীতি করেই এখানে এসেছি। এখন একটা ঘটনা ঘটেছে বলেই ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে হবে কেন?

তবে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) চাইলে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

বুধবার গণভবনে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র সফর পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, একেকটা ছাত্রের পেছনে কয়েক লক্ষ টাকা খরচ করে সরকার। মেধাবী তৈরির জন্য এতো টাকা খরচ করা হয়। মাস্তানি করার জন্য তো এসব টাকা দেয়া হয় না।  

তিনি আরও বলেন, বুয়েট একটা স্বায়ত্বশাসিত বিশ্ববিদ্যালয়। সরকার সেখানে ফান্ড দেয়। কিন্তু হস্তক্ষেপ করে না। তারা চাইলে সেখানে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে। এতে তাদের বিষয়। তবে আমি মনে করি, ছাত্ররাজনীতি থাকলে তাদের দেশের প্রতি আরও মমত্ব জাগবে।

সরকারপ্রধান বলেন, হলে হলে কোনো মাস্তানি চলবে না। দেশের প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে, প্রতিটি হলে তল্লাশি করতে হবে।

ফই//

LIVE
Play
গাণিতিকভাবে সবচেয়ে নিখুঁত সুন্দরী বেলা হাদিদ!
স্পেনের জানা-অজানা
টিকটকের মধুবালা
ফোর্বসের তালিকায় ২০১৯ সালে ভারতের শীর্ষ ধনী