আন্তর্জাতিক, আলোচিত, বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা নির্যাতন: সু চির বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা

মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা নির্যাতনে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে দেশটির স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চির বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা হয়েছে।

১৩ নভেম্বর সু চিসহ আরও কয়েকজন সামরিক নেতার বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা ও লাতিন আমেরিকান মানবাধিকার সংগঠনগুলো এই মামলা দায়ের করে।

রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলিম এবং অন্য সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর ওপর সামরিক বাহিনীর হামলায় মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য এই প্রথম কোনো আইনি পদক্ষেপের মুখোমুখি হচ্ছেন সু চি।

এর আগে আর্জেন্টিনার আদালতে স্প্যানিশ স্বৈরশাসক ফ্রান্সিসকো ফ্রাঙ্কো ও চীনের ফালুন গং আন্দোলনের বিচার হয়েছিল এই আইনের আওতায়।

‘ইউনিভার্সাল জুরিসডিকশন’ বা ‘বৈশ্বিক বিচার-দায়বদ্ধতার’ আওতায় দায়ের করা মামলায় রোহিঙ্গাদের ওপর যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ তুলে বলা হয়, এ ধরনের নৃশংস অপরাধ কেবল একটি জাতির প্রতি নয়, এটা যে কোথাও হতে পারে।

আইনজীবী টমাস ওজিয়া বলেন, ‘অভিযোগে অপরাধী, সহযোগী ও তথ্য গোপনকারীদের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে। আমরা আর্জেন্টিনার মাধ্যমে এটা করছি, কারণ অন্য কোথাও এই অভিযোগ করার কোনো সম্ভাবনা নেই।’

২০১৬ সালেই সু চির নোবেল শান্তি পুরস্কার ফিরিয়ে নেয়ার দাবি ওঠে। সেই সময় অনলাইনে তার নোবেল শান্তি পুরস্কার ফিরিয়ে নেয়ার জন্য এক আবেদনে স্বাক্ষর করেন লক্ষাধিক মানুষ।

এর আগে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালানোর অভিযোগে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ বিচারিক সংস্থা আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা করে গাম্বিয়া। মিয়ানমার জাতিসংঘের জেনোসাইড কনভেনশনে স্বাক্ষরকারী দেশ হওয়ায়, এই বিচার প্রক্রিয়া তাদের ওপর বিশাল চাপ সৃষ্টি করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফই/শাই/ফই

LIVE
বাংলাদেশে ২০১৯ সালের সেরা অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা
বুনোপ্রাণীর দেশ গাম্বিয়া
অভিবাসন প্রত্যাশীদের নিয়ে অভিনব প্রতারণা
কলার দাম ১ কোটি ১ লাখ ৭৬ হাজার টাকা!