চলচ্চিত্র, বাংলাদেশ

হত্যা না কি আত্মহত্যা?

চিত্রনায়ক সালমান শাহ কি খুন হয়েছিলেন? না কি, আত্মহত্যা? রহস্য, দীর্ঘ ২৩ বছরের। তদন্তে বিচারিক হাকিমের আদালতেই গেছে ১২ বছর। এখন ভার, পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)-এর হাতে।

পিবিআই উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) বনজ কুমার মজুমদার আশা করছেন, ‘মামলাটির কূল-কিনারা হবে শিগগিরই। প্রতিবেদন দেয়ার দিন রয়েছে, আগামী ১৮ ডিসেম্বর।’  

মাত্র ২৭টি চলচ্চিত্র। যার প্রায় সবই ছিলো সুপারহিট। কিন্তু, ছোট্ট এক জীবন নিয়ে জন্মেছিলেন, নায়ক সালমান শাহ। ৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর নিজের বাসায় পাওয়া যায় তার ঝুলন্ত মরদেহ।

শুরুতে অপমৃত্যু মামলা করেছিলেন সালমান শাহ এর বাবা। তদন্তে ছিল রমনা থানা পুলিশ। পরিবার নারাজি দেয়ায়, হত্যা মামলা হিসেবে নিয়ে, তদন্তে নামে সিআইডি। চূড়ান্ত প্রতিবেদন আসে ১৯৯৭ সালে। তাতে বলা হয়, এটা হত্যা নয়, আত্মহত্যা।

এক্ষেত্রেও আসে পরিবারের নারাজি। ২০০৩ সালে শুরু হয় বিচার বিভাগীয় তদন্ত। কেটে যায় ১২ বছর। এবারও প্রতিবেদনে বলা হয় আত্মহত্যা।

আবারও নারাজি। পরে র‌্যাবের হাত ঘুরে, ২০১৬ সালে তদন্তভার পায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন। সংস্থাটি অপমৃত্যু মামলা হিসেবেই এর তদন্ত করছে। কিন্তু, কেন এতো হাত ঘুরছে মামলাটি?

বাদীপক্ষের আইনজীবী ফারুক আহম্মেদ জানান, ‘এতোদিনে নষ্ট হয়েছে অনেক আলামত। রয়েছে সাক্ষীর অভাবও।’

আগামী ১৮ ডিসেম্বর তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার দিন রয়েছে। সেদিনই জানা যেতে পারে, খুন হয়েছিলেন, না কি আত্মহত্যা করেছিলেন বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহ।

ফারাহ্ হোসাইন/ফই

LIVE
বাংলাদেশে ২০১৯ সালের সেরা অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা
বুনোপ্রাণীর দেশ গাম্বিয়া
অভিবাসন প্রত্যাশীদের নিয়ে অভিনব প্রতারণা
কলার দাম ১ কোটি ১ লাখ ৭৬ হাজার টাকা!