বাংলাদেশ

২৩ ডিসেম্বর ভোট: জাতির উদ্দেশে সিইসি

আগাম ২৩ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হবে। জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে, ভোটগ্রহণের এই তারিখ জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা।

 

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেয়া যাবে ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত। যাচাই-বাছাই ২২ নভেম্বর আর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ নভেম্বর। তার ২৪ দিন পর হবে ভোটগ্রহণ।

 

সিইসি জানান, প্রশাসনকে সহযোগিতার জন্য স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে সেনাবাহিনী মোতায়েন থাকবে। নিরাপত্তা রক্ষায় থাকবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ৬ লাখ সদস্য। ভোটগ্রহণের জন্য ৭ লাখ লোকবল নিয়োগ দেয়া হবে বলেও জানান সিইসি।

 

তিনি জানান, শহরাঞ্চলের অল্প কিছু কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের ব্যবহার করে ভোট নেয়া হবে। তবে ঠিক কতগুলো কেন্দ্রে আলোচিত এই ইভিএমের ব্যবহার হবে, তা স্পষ্ট করেননি নূরুল হুদা।

 

জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, ২৮ জানুয়ারির মধ্যে একাদশ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের বাধ্যবাধকতা থাকায়, তফসিল ঘোষণা পেছানোর উপায় ছিলো না।

 

আসন্ন নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ প্রত্যাশা করেছেন সিইসি। আলোচনার মাধ্যমে মতের অমিল নিরসনের তাগিদও দিয়েছেন কে এম নূরুল হুদা।

 

ভাষণে সিইসি বলেন, নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে নির্বাচন কমিশন সব ধরনের পদক্ষেপ নেবে। ভোটের প্রতিদ্বন্দ্বিতা যাতে প্রতিহিংসা ও সহিংসতায় পরিণত না হয়, সেদিকে নজর রাখতে সব রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

 

৩০০টি আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচনে এবার ভোট দেবেন ১০ কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার ৪৮০ ভোটার।

 

শাই/মাও

Comments are closed.

LIVE
Play
সেন্ট মার্টিন’স-এ পর্যটক নিয়ন্ত্রণ কেন জরুরি
একনজরে মুহাম্মাদ সা.
আমি এখনো আপনার গান শুনছি
ঢাকার ইতিহাস: জীবনদায়ী মিটফোর্ড হাসপাতাল