বাংলাদেশ

নারী সাংসদদের তালিকায় নতুন মুখের সম্ভাবনা

সংসদের প্রথম অধিবেশনেই সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্যদের যোগদান নিশ্চিত করতে চায় আওয়ামী লীগ। এর মধ্যেই সংরক্ষিত নারী আসনে মনোনয়ন নিয়ে তোড়জোড় শুরু করেছে দলটি। মঙ্গলবার সংরক্ষিত মহিলা আসনে দলের মনোনয়র ফরম বিক্রি শুরু হয়।

 

বিদ্যমান আইন অনুযায়ী, প্রতি ৬ আসনে একজন সংরক্ষিত মহিলা এমপি নির্বাচিত করার বিধান। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মোট আসন পেয়েছে ২৫৭টি। সে হিসেবে আওয়ামী লীগের ৪৩টি আসন। জাতীয় পার্টি ২২ এমপির বিপরীতে আসন ৪টি। মহাজোটের অন্যান্য দলের ৬টি বা তার বেশি আসন না পাওয়ায় এককভাবে কেউ সংরক্ষিত আসনে মহিলা এমপির মনোনয়ন দিতে পারবে না।

 

দলীয় সূত্রে জানা যায়, সংরক্ষিত মহিলা আসনে যোগ্য প্রার্থীরাই এগিয়ে থাকবে। যারা দলের ও সরকারের দুর্দিনে ত্যাগ স্বীকার করেছেন, বিভিন্ন কাজে অবদান রেখেছেন, দলের ও দলের সহযোগী সংগঠনে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন এমন নেত্রীরা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাবেন।

 

দশম জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য, সাবেক ছাত্রনেত্রী, শিক্ষক, উদ্যোক্তা, অভিনেত্রী, শিল্পী, ব্যবসায়ী, দলের জন্য নিবেদিত অন্যান্য কর্মী বিশেষ করে মহিলা লীগ, যুব মহিলা লীগ নেত্রীদের মধ্য থেকে নাম সংগ্রহ করছে আওয়ামী লীগ।

 

এবার যাদের আওয়ামী লীগের সংরক্ষিত মহিলা আসনে এমপি হবার সম্ভাবনা রয়েছে তারা হলেন আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ, শিক্ষা সম্পাদক শামসুন নাহার চাপা, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মারুফা আক্তার পপি, মেরিনা জাহান, পারভীন জামান কল্পনা, ধানমন্ডি থানা মহিলা লীগের সভাপতি শেখ মিলি।

 

আরো দেখা যেতে পারে, সুচিন্তা ফাউন্ডেশনের চট্টগ্রাম বিভাগের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট জিনাত সোহানা চৌধুরী। নারী হিসেবে চট্টগ্রামের বিভিন্ন মাদ্রাসায় নিয়মিত জঙ্গিবাদবিরোধী সচেতনতামূলক সমাবেশ করে বেশ আলোচিত সোহানা।

 

তরুণ দন্ত চিকিৎসক আদেলী এদিব খানও আছেন এই তালিকায়। আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণায় বিশেষ ভূমিকা রেখেছিলেন তিনি। ঢাকা উত্তর আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

 

আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য এডভোকেট নাসরিন সিদ্দিকা লিনা। তিনি আলোচনায় আসেন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কোনো বক্তব্য মিডিয়াতে প্রচার হতে পারবে না- আদালতে এমন একটি রিট করে।

 

প্রয়াত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের বোন সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি আলোচনায় রয়েছেন। এছাড়াও আলোচনায় আছেন স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান ফাতিনাজ ফিরোজও।

 

যুব মহিলা লীগের সহ-তথ্য সম্পাদক তানিয়া সুলতানা হ্যাপী। হ্যাপী নির্বাচন পর্যবেক্ষক উপ-কমিটি ও পোলিং এজেন্ট প্রশিক্ষণে দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন।

 

মহিলা লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুন, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম কৃক, কেন্দ্রীয় নেত্রী শিরিন রুখসানা, যুবমহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার, স্বাস্থ্য উপকমিটির সদস্য ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ডা. সাঈদা শওকত জেনি।

 

এছাড়াও পুরনোদের মধ্যে আলোচনায় রয়েছেন, তারানা হালিম, ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা, মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শিরীন নাঈম পুনম, সানজিদা খানম, ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পি, নূরজাহান বেগম মুক্তা, সাবিনা আক্তার তুহিন, মেহজাবিন খালেদ, ওয়াসিকা আয়েশা খান, নিলুফার জাফর উল্লাহ।

 

রাজশাহীর বেগম আক্তার জাহান, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহীন আক্তার রেণী, সহ-সভাপাতি নিঘাত পারভীন, ইয়াসমিন রেজা ফেনসি।

 

আরও থাকতে পারেন বরিশাল জেবুন্নেছা আফরোজ, ময়মনসিংহের মনিরা সুলতানা, নীলফামারীর অ্যাডভোকেট তুরিন আফরোজ, মৌলভীবাজারের সায়রা মহসিন, কুষ্টিয়ার সুলতানা তরুণ। আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া উপকমিটি সদস্য সুমনা আক্তার লিলি, নীলফামারী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক শান্তনা চক্রবর্তীও রয়েছেন আলোচনায়।

 

 

 

এছাড়া আলোচনায় আরও রয়েছেন, মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রয়াত এম এ আজিজের স্ত্রী রাবেয়া আজিজ, প্রয়াত মাহবুবুল হক শাকিলের স্ত্রী অ্যাডভোকেট নীলুফার আনজুম পপি, শেখ হাফিজুর রহমান টোকনের স্ত্রী শেখ এ্যানি রহমান, সাবেক সমাজকল্যাণ মন্ত্রী মহসীন আলীর স্ত্রী সায়েরা মহসীন, সাবেক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী অ্যাডভোকেট ছায়েদুল হকের স্ত্রী দিলশাদ আরা মিনু, শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. আলীম চৌধুরীর মেয়ে ডা. নুজহাত চৌধুরী শম্পা।

জাআ//মাও
LIVE
Play
আকাশের আত্মহত্যা ও পুরুষতান্ত্রিক তসলিমা নাসরিন
লাল সবুজের পতাকা কন্যা নাজমুন নাহার দেশ দেশান্তে!
‘বিএনপির মৌসুমীরা’ আওয়ামী লীগে মৌসুমী পাখি!
অ্যাডভেনচারের নেশায় | পর্ব ৩