বাংলাদেশ

দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্যের জরিপ প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ

ঢাকাসহ সারা দেশের বাজারে কোন কোন কোম্পানির দুধ ও দুগ্ধজাত খাদ্য পণ্যে কী পরিমাণ ব্যাকটেরিয়া, কীটনাশক এবং সিসা মেশানো রয়েছে, তা নিরূপণ করে একটি জরিপ প্রতিবেদন তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

 

আগামী ১৫ দিনের মধ্যে জাতীয় নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের এ আদেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে দুধে সিসা মিশ্রণকারীদের শাস্তির আওতায় আনার ব্যর্থতা কেন বেআইনি হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

 

এ বিষয়ে কয়েকটি জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন আদালতের নজরে আনা হলে সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এ কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

 

প্রতিবেদনগুলো আদালতের নজরে আনেন আইনজীবী মামুন মাহবুব। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

 

সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, গাভির দুধে সহনীয় মাত্রার চেয়ে বেশি কীটনাশকসহ বিভিন্ন অ্যান্টিবায়োটিকের উপাদান পাওয়া গেছে। মিলেছে অণুজীবও।

 

ন্যাশনাল ফুড সেফটি ল্যাবরেটরির গবেষণায় এই ফলাফল উঠে এসেছে। দেশের বিভিন্ন স্থানের খামার থেকে গাভির দুধের ৯৬টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। এছাড়া, বাজারে পাওয়া যায় এমন প্রায় সব ব্র্যান্ডের প্যাকেট তরল দুধ পরীক্ষা করে তাতে অ্যান্টিবায়োটিকের পাশাপাশি মাত্রাতিরিক্ত সীসা পাওয়া গেছে। দই পরীক্ষা করে তাতেও মিলেছে সীসার অস্তিত্ব। জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার আর্থিক সহায়তায় জরিপটি চালানো হয়।

 

শাই//ফাআ

LIVE
Play
আকাশের আত্মহত্যা ও পুরুষতান্ত্রিক তসলিমা নাসরিন
লাল সবুজের পতাকা কন্যা নাজমুন নাহার দেশ দেশান্তে!
‘বিএনপির মৌসুমীরা’ আওয়ামী লীগে মৌসুমী পাখি!
অ্যাডভেনচারের নেশায় | পর্ব ৩