বাংলাদেশ

প্রকাশিত খবরের প্রতিবাদ শ্যামপুর মডেল কলেজ অধ্যক্ষের

উপহারের নামে বাসার জন্য এয়ার কন্ডিশনার এবং স্ত্রীকে আইফোন কিনে দিতে বাধ্য করেছেন শিক্ষক-কর্মচারীদের। এছাড়াও নারী শিক্ষককে যৌন হয়রানির অভিযোগও উঠেছে রাজধানীর শ্যামপুর সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহেদ আলীর বিরুদ্ধে। এমন একটি প্রতিবেদন নাগরিক টেলিভিশনে প্রচারিত হয় গত ১৪ আগস্ট।

প্রচারিত সংবাদটির প্রতিবাদ জানিয়েছেন শ্যামপুর সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহেদ আলী। নাগরিক টেলিভিশনের বার্তা প্রধান বরাবর একটি প্রতিবাদ লিপি পাঠিয়েছেন তিনি। তাতে তিনি বলেছেন, নাগরিক সংবাদে প্রচারিত সব তথ্য মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তার প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক তথ্য দিয়েছেন বলেও দাবি করেন অধ্যক্ষ শাহেদ আলী। তিনি অভিযোগ করেছেন, তথ্য যাচাই-বাছাই না করেই প্রতিবেদনটি প্রচার করা হয়েছে।

প্রতিবেদকের বক্তব্য:
শ্যামপুর সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহেদ আলীর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের পরিপূর্ণ সঠিক তথ্য হাতে নিয়েই প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়। যেখানে ভুক্তভোগীরা তাদের অভিযোগের কথা তুলে ধরেছেন। শিক্ষা সচিব বরাবর দেয়া শিক্ষকদের দায়ের করা অভিযোগ সংক্রান্ত আবেদনের কপি প্রতিবেদনে যুক্ত করা হয়েছে। ইতিমধ্যে অভিযোগ আমলে নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

সাশা/শাই (২.২৩)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

‘কাঁচা বাদাম’ গান ও একজন ভুবন বাদ্যকার
মা ও স্ত্রীর মধ্যে ভারসাম্য রাখতে চান?
অন্ধদের দৃষ্টি ফেরাবে বায়োনিক চোখ
আপনার ফোনে আড়ি পাতলে কিভাবে বুঝবেন?