বাংলাদেশ

মডেলিংকে পেশা হিসেবে নিতে চায় ফাহিম

বগুড়ার ছেলে রেইন ফাহিম। শৈশব কাল ও  স্কুল-কলেজ জীবনে বড় হওয়া বগুড়াতেই। পরিবারের কনিষ্ঠ ছেলে হওয়ায় বেশ আদর আর কড়া শাসনে বেড়ে ওঠে।

ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইনে পড়া শেষ করলেও মডেলিংয়ে তার ঝোঁক। তবে বাবার ইচ্ছা ছেলে উকিল হবে। সেই ইচ্ছার সাথে নিজের ইচ্ছাকে যোগ করে প্রানবন্ত চেষ্টা শুরু ফাহিমের। ২০১৩ সালে আচেনা শহরে এসে খাপ খাওয়াতে কষ্ট হলেও থেমে নেইে এগিয়ে চলা। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে পরিচয় হয় নাট্য জগতের বেশকিছু ব্যাক্তিদের সাথে।

‘সবাই বলে হাইট ভালো বডি ফিটনেস ভালো। তোমার মডেলিং স্টার্ট করা উচিত। কিন্তু আমি ভাবতাম আমাকে দিয়ে এসব হবেনা, পরে আবার ভাবলাম চেষ্টা করতে দোষ কি। বাবা মা কখনোই মিডিয়াতে কাজ করাটা মেনে নেয়নি তবুও নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করতে এ যাত্রা শুরু করেছি’ বলছিলেন ফাহিম।

মিডিয়া জগতে ব্রান্ড “ডোরস্’ এর সাথে প্রথম কাজ দিয়ে পথচলা শুরু। আস্তে আস্তে টিভিসি, ড্রামা, থিয়েটার , র‍্যাম্প শো , অনলাইন ব্র্যান্ড,  অনেক জায়গায় ক্রমাগত কাজ করতে থাকেন ফাহিম। কাজে পেশাদারিত্বের তকমা লাগাতে গ্রুমিংটাকে নতুন মাত্রা  হিসেবে নিজের সঙ্গে সেঁটে নিলেন বগুড়ার ছেলে ফাহিম।  

শেখার কি শেষ আছে? ফাহিম ও বিশ্বাস করেন আমৃত্যু শিখতে হবে। তাই শিখতে শিখতে এগোতে চান অনেকটা পথ। ফ্যাশন কোরিওগ্রাফিতে ভালো কিছু করার প্রত্যয়ে মডেলিং এর পাশাপাশি অনেক ব্র্যান্ড হাউস ও অনলাইন শপ এর জন্য ফ্যাশন কোরিওগ্রাফিটাও শুরু করলেন ফাহিম। করোনায় সব পিছিয়ে গেলেও নিজেকে ফিট রাখার যুদ্ধে থেমে নেই তিনি । ফাহিম লম্বায় ৬ ফিট। নিয়মিত শরীর চর্চা করেন।

কারন মডেল দুনিয়া প্রতিষ্ঠিত হতে হলে নিয়মিত শরীর কসরতের বিকল্প নেই বলে জানান ফাহিম। একটি জিম ক্লাবের সহকারি কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। মডেল হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করতে চাওয়া ফাহিমের ইচ্ছা, ভবিষ্যতে গ্রুমিং নিয়ে একটা স্কুল খুলবেন। তার স্বপ্ন সেখানে ক্লাস নেবেন দেশের বড় বড় ফ্যাশান ডিজাইনার, কোরিওগ্রাফাররা।

করোনায় সবকিছু পিছিয়ে গেলেও হাতে রয়েছে এখনও বেশ কিছু কাজ। যা নিয়ে আবারও আসতে চান দর্শকদের স্মার্টস্ক্রীনে।

আহো/ফাসা/ফই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE

‘কাঁচা বাদাম’ গান ও একজন ভুবন বাদ্যকার
মা ও স্ত্রীর মধ্যে ভারসাম্য রাখতে চান?
অন্ধদের দৃষ্টি ফেরাবে বায়োনিক চোখ
আপনার ফোনে আড়ি পাতলে কিভাবে বুঝবেন?