30 C
Dhaka
মঙ্গলবার, আগস্ট ১৬, ২০২২

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধী রিয়াজ ফকিরের মৃত্যুদণ্ড

বিশেষ সংবাদ

- Advertisement -

 

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত ময়মনসিংহের রিয়াজ উদ্দিন ফকিরকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। ১০ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল এ রায় দেন।

 

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর ঋষিকেষ সাহা। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী মুজাহিদুল ইসলাম শাহীন ও সৈয়দ মিজানুর রহমান।

 

রায়ের পরে আসামিপক্ষে আইনজীবী মুজাহিদুল ইসলাম শাহীন বলেন, দু’টি অভিযোগে যাবজ্জীবন এবং দু’টি অভিযোগে তাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

 

রায় ঘোষণার সময় মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী রিয়াজ উদ্দিন ফকির আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাকে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে কারাগার থেকে আদালতে নিয়ে আসা হয়।

 

২১ মার্চ ২০১৮ এই মামলায় উভয় পক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষ হয়। ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী হিসেবে ছিলেন ঋষিকেশ সাহা। অন্যদিকে, আসামিপক্ষে ছিলেন সৈয়দ মিজানুর রহমান ও মুজাহিদুল ইসলাম শাহিন।

 

এ মামলায় তিনজন আসামির মধ্যে অন্য দু’জন ফুলবাড়িয়ার আমজাদ আলী গ্রেফতারের পর ‍ও রাজাকার ওয়াজ উদ্দিন পলাতক অবস্থায় মারা গেছেন। এছাড়া অন্যজনকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

 

রিয়াজ উদ্দিন ফকিরকের বিরুদ্ধে হত্যা, গণহত্যা, আটক, অপহরণ, নির্যাতন ও ধর্ষণের পাঁচটি মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ২২ আগস্ট থেকে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত ফুলবাড়িয়া উপজেলার বেবিট্যাক্সি স্ট্যান্ড, রাঙ্গামাটিয়া ঈদগাহ সংলগ্ন বানা নদী, আছিম বাজার ও ভালুকজান গ্রামে তিনি এসব অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়েছিলেন বলেও অভিযোগে বলা হয়েছে।

ফাই//মাও
- Advertisement -
- Advertisement -

আরও পড়ুন

- Advertisement -

সর্বাধিক পঠিত