30 C
Dhaka
মঙ্গলবার, আগস্ট ১৬, ২০২২

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতে লকডাউনে পার্টি ‘নেতৃত্বের ব্যর্থতায়’

বিশেষ সংবাদ

Juboraj Faishal
Juboraj Faishalhttps://www.nagorik.com
Juboraj Faishal is a News Room Editor of Nagorik TV.
- Advertisement -

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে, লকডাউনের মধ্যে মদের পার্টি আয়োজন করা ছিলো, নেতৃত্বের ব্যর্থতা। মন্ত্রিসভা কার্যালয়ের তদন্ত প্রতিবেদনে, উঠে এসেছে এমন অবস্থান। বিষয়টি মেনেও নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তবে, ক্ষমতা ছাড়ছেন না, জানিয়ে রেখেছেন তিনি।

সারা দেশে যখন করোনাভাইরাস মোকাবিলায় লকডাউন চলছে, তার মধ্যেই নিজের সরকারি বাসভবনে মদের পার্টি আয়োজন করেন, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। সেদিন ছিলো তার জন্মদিন। এ ধরনের পার্টি, আরও হয়েছে ডাউনিং স্ট্রিটে।

খবরটি প্রকাশ হওয়ার পরই, তীব্র সমালোচনায় বিদ্ধ হন জনসন। তার নিজের দলেই ওঠে পদত্যাগের দাবি। অভিযোগ, নেতৃত্ব দেয়ার যোগ্যতা হারিয়েছেন তিনি। কারণ, করোনা মোকাবিলায় বিধিনিষেধ আরোপ করে, নিজেই তা লঙ্ঘন করেছেন।

পদত্যাগের দাবি জোরালো হতেই থাকে। এক পর্যায়ে, তদন্তে নামে মন্ত্রিপরিষদ কার্যালয়। ১৬টি আলাদা ঘটনার তদন্তে নেতৃত্ব দেন জ্যেষ্ঠ সরকারি কর্মকর্তা সু গ্রে। অবশেষে প্রতিবেদন দিলেন। জানালেন, ডাউনিং স্ট্রিটে প্রধানমন্ত্রীর বাড়ির বাগানে যতো মদের পার্টির আয়োজন হয়েছে, তার পেছনে রয়েছে নেতৃত্বের ব্যর্থতা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, লকডাউনের বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের প্রমাণ রয়েছে। কিছু অনুষ্ঠান ছিলো, যেগুলোর অনুমতি দেয়া উচিৎ হয়নি। তদন্তের ফল পুরোপুরি মেনেও নিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। যদিও, বিরোধীদের পদত্যাগের আহবানের সময় তিনি দাবি করেন, কোনো নিয়ম ভাঙা হয়নি।

কোভিড বিধি ভাঙা হয়েছে কি না, তার তদন্ত করছে পুলিশও। তাদের প্রতিবেদন পাওয়ার পর, পূর্ণাঙ্গ দ্বিতীয় রিপোর্ট দেবেন সু গ্রে, অঙ্গীকার করেছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। তবে, পদত্যাগ করবেন না, আগের অবস্থানেই এখনো রয়েছেন ব্রিটিশ সরকারপ্রধান জনসন।

তাজ/ফই

- Advertisement -
- Advertisement -

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

সর্বাধিক পঠিত