27 C
Dhaka
শুক্রবার, আগস্ট ১২, ২০২২

সিরিয়ায় মিসাইল হামলা

বিশেষ সংবাদ

Juboraj Faishal
Juboraj Faishalhttps://www.nagorik.com
Juboraj Faishal is a News Room Editor of Nagorik TV.
- Advertisement -

সিরিয়ার কয়েকটি জায়গায় একযোগে মিসাইল হামলা চালিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স। হোয়াইট হাউস সূত্রে জানা যায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে এই হামলা চালিয়েছে আমেরিকা ৷ সঙ্গে সামিল হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র এবং ফ্রান্স ৷

শনিবার ১৪ এপ্রিল সকালে সিরিয়ার দুমা শহরে বাশার আল–আসাদের বাহিনীর রাসায়নিক হামলার জবাবে এ বোমা হামলা চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস ।

সপ্তাহখানেক আগে সিরিয়ার ভৌমা শহরে রাসায়নিক অস্ত্র হামলা করে প্রেসিডেন্ট বাসার-আল-আশাদ বাহিনী ৷ এতে মৃত্যুও হয় অনেক শিশুর ৷ সেই হামলার জবাবে বাসার-আল-আশাদ বাহিনীর উপর এই হামলা চালাল যুক্তরাষ্ট্র ৷

বিবিসি সূত্রে জানা যায়, সিরিয়ার তিনটি জায়গায় হামলা চালানো হয়েছে। সেগুলো হল, দামেস্ক-এর একটি বৈজ্ঞানিক গবেষণা কেন্দ্র যেখানে এই রাসায়নিক ও জৈবিক অস্ত্র উৎপাদন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। দ্বিতীয়টি হোমস শহরের পশ্চিমে একটি এলাকা – যেখানে রাসায়নিক অস্ত্র মজুত করে রাখা হতো বলে দাবী করা হচ্ছে। তৃতীয়টি হোমস শহরের একটি সেনা ঘাটি। এখানে রাসায়নিক অস্ত্রের উপাদান মজুত রাখা হত বলে দাবী করছে পেন্টাগন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, যতদিন না সিরিয়া ‘রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার’ বন্ধ করছে, ততদিন হামলা চলবে ৷

হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সিরিয়া প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ। হামলার ঘটনায় সিরিয়ার মিত্র দেশ রাশিয়া তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। এক বিবৃতিতে রাশিয়া বলেছে যে তাদের মিত্র দেশের ওপরে এই হামলার জবাব দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাসার-আল-আশাদের পদত্যাগের দাবিতে কয়েক বছর ধরে গৃহযুদ্ধ চলছে সেখানে ৷ এই গৃহযুদ্ধে প্রাণ হারাচ্ছে অনেক সাধারণ মানুষ ৷

 

জাআ//
- Advertisement -
- Advertisement -

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

সর্বাধিক পঠিত