27 C
Dhaka
শুক্রবার, আগস্ট ১২, ২০২২

স্বাধীনতা পুরস্কার পেলেন ১৮ বিশিষ্ট জন

বিশেষ সংবাদ

- Advertisement -

নিজ নিজ ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখায় ১৮ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে স্বাধীনতা পুরস্কার-২০১৮ প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  ২৫ মার্চ রবিবার সকালে রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তনে আয়োজিত হয় ‘স্বাধীনতা পুরস্কার-২০১৮’ প্রদান অনুষ্ঠান।

 

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘স্বাধীনতা পুরস্কার থেকে অনুপ্রাণিত হবে তরুণ প্রজন্ম। দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হবে ও আগামী দিনে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এই যাত্রা যেন অব্যাহত থাকে। মুক্তিযুদ্ধে চেতনায় বাংলাদেশ গড়ে উঠবে। বিজয়ী জাতি হিসেবে আমরা মাথা উঁচু করে চলবো।’

 

পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য কাজী জাকির হোসেন (মরণোত্তর), শহীদ এস এম এ রাশীদুল হাসান (মরণোত্তর),শঙ্করগোবিন্দ চৌধুরী (মরণোত্তর),এয়ার ভাইস মার্শাল (অবসরপ্রাপ্ত) সুলতান মাহমুদ (বীর-উত্তম), এম আব্দুর রহিম (মরণোত্তর), ভূপতিভূষণ চৌধুরী ওরফে মানিক চৌধুরী (মরণোত্তর), শহীদ লে. আনোয়ারুল আজিম (মরণোত্তর), হুমায়ূন রশিদ চৌধুরী (মরণোত্তর), আমানুল্লাহ মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান (মরণোত্তর), মতিউর রহমান মল্লিক (মরণোত্তর), সার্জেন্ট জহুরুল হক (মরণোত্তর), আমজাদুল হক; সংস্কৃতিতে অবদানের জন্য আসাদুজ্জামান নূর, কৃষিক্ষেত্রে অবদানের জন্য শাইখ সিরাজ, চিকিৎসায় অধ্যাপক ডা. এ কে এম ডি আহসান আলী, সমাজসেবায় অধ্যাপক এ কে আজাদ খান, সাহিত্যে কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন এবং খাদ্য নিরাপত্তায় আব্দুল মজিদ।

পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আজকে যারা সম্মাননা পেয়েছেন, এর মাঝে অনেকেই মরণোত্তর পুরস্কার পেয়েছেন। সম্মানপ্রাপ্ত সবাইকে অভিনন্দন, যারা মারা গেছেন তাদের প্রতি  শ্রদ্ধা।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা আমাদের স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। তার লক্ষ্য ছিল সোনার বাংলাদেশ। আমরা সেই সোনার বাংলা গঠন করার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। আর আমাদের এই লক্ষ্য অর্জনে এবং আমাদের মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে যারা বিশেষ অবদান রেখেছেন বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমরা চেষ্টা করছি তাদের সম্মান জানাতে। ২০০৯ সালে সরকার গঠন করার পর থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ৮৫ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে ও ৬টি প্রতিষ্ঠানকে স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত করেছি। এবছর করলাম আরও ১৮ জনকে। যদিও আমরা জানি আরও বহুজনের অবদান ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে, আমরাও চেষ্টা করছি তাদের খুঁজে বের করতে। আমরা তাদের সম্মানিত করে নিজেরাই সম্মানিত হতে চাই। সেটাই আমাদের লক্ষ্য।

 

উল্লেখ্য, স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার বা স্বাধীনতা পুরস্কার বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননাপদক।  স্বাধীনতা পদকের ক্ষেত্রে পুরস্কারপ্রাপ্ত ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে ১৮ ক্যারেট মানের পঞ্চাশ গ্রাম স্বর্ণের পদক, পদকের একটি রেপ্লিকা, ৩ লাখ টাকা ও একটি সম্মাননাপত্র দেওয়া হয়।

 

শাফে//
- Advertisement -
- Advertisement -

আরও পড়ুন

- Advertisement -

সর্বাধিক পঠিত