♦♦ সারা দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৯৭৫ জন। ♦♦ করোনা উপসর্গ দেখা দিলে অথবা করোনা বিষয়ক জরুরি স্বাস্থ্যসেবা পেতে ৩৩৩ অথবা ১৬২৬৩ নম্বরে কল করুন এবং তথ্য পেতে www.corona.gov.bd ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।। এ ছাড়া আইইডিসিআরের ইমেইল বা ১৬২৬৩ নম্বরে ফোন করা যাবে। ♦♦ www.livecoronatest.com এ আপনি ঘরে বসেই কোভিড-১৯ বা নভেল করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত কি'না, তা নিজেই মূল্যায়ন করতে পারবেন। এমনকি আপনার ঝুঁকির মাত্রা ও করনীয় সম্পর্কেও জানতে পারবেন।

করোনা ভাইরাসের সর্বশেষ খবর, ফিচার , ,

করোনা মোকাবিলায় কানাডা

রাশেদুল ইসলাম

করোনা মোকাবিলায় কানাডা সম্প্রতি কিছু দৃঢ় পদক্ষেপ নিয়েছে। তারমধ্যে অন্যতম হচ্ছে মার্চের ১৬ তারিখ থেকে কানাডিয়ান ছাড়া অন্য কেউ আকাশপথে দেশে প্রবেশ করতে পারবেনা। আর প্রবেশের ক্ষেত্রে ১৪ দিনের আইসোলেশনে বাধ্যতামূলক। কানাডায় করোনাভাইরাসের প্রভাবে সরাসরি ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের জন্য আর্থিক সহায়তার ব্যবস্থা করেছে দেশটির সরকার। অন্যান্য দেশের মত কানাডার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, ক্লাস হচ্ছে অনলাইনে।

কানাডা-যুক্তরাষ্ট্র যৌথ পদক্ষেপ

আমি কানাডায় বসবাস করছি ৬ বছর যাবত। ইউনিভার্সিটি অব ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় পিএইচডি করছি। আমি যেই ল্যাবে কাজ করি সেখানে প্রায় ১ মাস যাবত প্রবেশ নিষেধ। প্রবেশের অনুমতি আছে শুধু COVID-19 ভাইরাস নিয়ে যারা গবেষণা করছেন। প্রতিদিন নিয়ম করে অনলাইনে মিটিং, কাজ ও ব্যক্তিগত বিষয়ে আলোচনা ও খোঁজখবর চলে। এই মুহূর্তে আমি ভ্যাঙ্কুভার শহরে আমার কক্ষে ১ মাস যাবত বন্দি। ১০দিন পরপর নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর জন্য বাসা থেকে বের হই। সেসময় একে একে চোখে পড়ে শহরের নিত্যনতুন পরিবর্তন।  

  • চলতি সপ্তাহে বাস ভাড়া একদম ফ্রি করে দেয়া হয়েছে।  
  • সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতের জন্য বাসের দুই সিটে পাশাপাশি দুইজন বসা নিষেধ।  
  • চালকের সুরক্ষার জন্য বাসের সামনের দরজা দিয়ে যাত্রীদের প্রবেশ নিষেধ।  
  • দ্রব্যসামগ্রী কেনার সময় দোকানে সবাই সামাজিক দূরত্ব বজায়ের জন্য আছে মনিটরিং ব্যবস্থা।
  • বাজার শেষে এলকোহল বা স্যানিটাইজার দিয়ে সবাই হাত পরিষ্কার করছে কিনা তা লক্ষ্য রাখা হচ্ছে।
পার্কে করোনাভাইরাস তথ্য

শরীর সুস্থ রাখার জন্য অনেকেই বাসায় বিভিন্ন ধরণের শরীরচর্চা করছেন। কেউ কেউ আবার বাইরেও যান দৌড়াতে। সেক্ষেত্রে তারা অপেক্ষাকৃত নির্জন জায়গা বেছে নেন। শহরের বিভিন্ন পার্ক ও সমুদ্র সৈকতে আছে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা। তাছাড়া, বড় বড় পার্কগুলোতে যেখানে মানুষের সমাগমের সম্ভাবনা বেশি, সেখানে দায়িত্বে আছেন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা।  

সমুদ্র সৈকতে নির্দেশনা

মার্চের শুরুতে আতঙ্কে অনেকেই খাবার মজুদ করেছেন। ফলে মাসের শুরুর দিকে বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের কিছুটা সঙ্কট দেখা দেয়। প্রয়োজনের বেশি মজুদের কারণে বাসার খাবার নষ্ট হতে শুরু করে অনেকের। এতে সবারই শিক্ষা হয়। প্রয়োজনের অতিরিক্ত কিছু না কিনলে বাজারে যেমন সঙ্কট তৈরি হয় না আবার এই মহামারির সময়ে খাবার নষ্ট হয়না। তবে, গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হচ্ছে এতকিছুর পরও কোন কিছুর দাম বাড়েনি।

কানাডার জনসংখ্যা প্রায় ৪ কোটি। করোনা মোকাবিলায় সবগুলো প্রদেশেই যথেষ্ট উদ্যমী ভূমিকা পালন করেছে ট্রুডোর সরকার। সরকারি নির্দেশনা, মানুষের গৃহবন্দি ও সামাজিক দূরত্ব এবং সামনের দিনগুলোতে আরও বেশি লোকের COVID-19 ভাইরাস পরীক্ষা। এসব পদক্ষেপের মাধ্যমে কানাডা এই মহামারিকে খুব দ্রুত নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসবে বলে আশা করি।  

লেখক: কানাডা প্রবাসী
ব্রিটিশ কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি স্টুডেন্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LIVE


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশ

আক্রান্ত
৩৫৫৮৫
সুস্থ
৭৩৩৪
মৃত্যু
৫০১
সূত্র:আইইডিসিআর

বিশ্ব

আক্রান্ত
৫৫৫৪৫০৪
সুস্থ
২৩৩১৫৯৭
মৃত্যু
৩৪৮১৪১
সূত্র: ওয়ার্ল্ড মিটার
ঈদের ইতিহাস
ঘূর্ণিঝড়ের নাম যেভাবে রাখা হয়
ঘূর্ণিঝড়ের সংকেত ও এর অর্থ
বারবার হাত ধোয়ার কারণে ত্বক শুকিয়ে গেলে যা করবেন