24 C
Dhaka
শুক্রবার, মার্চ ২৪, ২০২৩

সরস্বতী পূজা: মণ্ডপে মণ্ডপে বিদ্যার দেবীর আরাধনা

বিশেষ সংবাদ

- Advertisement -

যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যে সারা দেশে পালিত হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব সরস্বতী পূজা। প্রতি বছর মাঘ মাসের শুক্লপক্ষের পঞ্চমী তিথিতে এই আরাধনা হয়ে আসছে। মৌসুমের প্রথম ফোটা পলাশ ও তরুণ প্রাণের উচ্ছ্বাসে, মণ্ডপে মণ্ডপে পূজিত হচ্ছেন বিদ্যার দেবী।

দেবী সরস্বতী বিদ্যাদায়িনী শ্বেত-শুভ্র বসনা। তার এক হাতে বীণা অন্য হাতে বেদপুস্তক। অর্থাৎ তিনি বীণাপাণি দেবী সরস্বতী। আর এ থেকেই বাণী অর্চনার প্রচলন।

সনাতন ধর্মালম্বীদের বিশ্বাস মতে, দেবী সরস্বতী সত্য, ন্যায় ও জ্ঞানালোকের প্রতীক। বিদ্যা, বাণী ও সুরের অধিষ্ঠাত্রী।

দেশে সরস্বতী পূজার সবচেয়ে বড়ো আয়োজনটি হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলে। হলটির খেলার মাঠ জুড়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগ আলাদাভাবে পূজার আয়োজন করে থাকে। তবে বিশেষ আকর্ষণ থাকে হলের পুকুরে চারুকলার সরস্বতী প্রতিমা।

সরস্বতী পূজার ধর্মীয় আচার ও অন্য আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে রয়েছে- পুষ্পাঞ্জলি, হাতেখড়ি, প্রসাদ বিতরণ, ধর্মীয় আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সন্ধ্যা আরতি ও আলোকসজ্জা।

সরস্বতী পূজা উপলক্ষে দেশের বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নানা আয়োজনে পূজিত হন বিদ্যাদেবী। পাশাপাশি এই উৎসব ছাড়িয়ে যায় পাড়া-মহল্লার অলিগলি থেকে নানা সামাজিক পরিসরে।

পূজান্তে পুষ্পাঞ্জলি দেওয়ার প্রথাটি অত্যন্ত জনপ্রিয়। বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্রছাত্রীদের দল বেঁধে অঞ্জলি দিতে দেখা যায়। পূজার পরদিন পুনরায় পূজার পর চিড়ে ও দই মিশ্রিত করে দধিকরম্ব বা দধিকর্মা নিবেদন করা হয়। এরপর পূজা সমাপ্ত হয়। সন্ধ্যায় প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হয়।

- Advertisement -

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বাধিক পঠিত