28 C
Dhaka
সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২

নিউইয়র্ক তদন্তে প্রশ্নের জবাব দিতে ট্রাম্বের অস্বীকৃতি

বিশেষ সংবাদ

- Advertisement -

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার পরিবারিক ব্যবসা নিয়ে নিউইয়র্কে তদন্ত চলছে। সেখানে হাজির হলেও, তদন্তকারী কর্মকর্তাদের কোনো প্রশ্নের উত্তর দেননি। ঋণ ও কর সুবিধার জন্য সম্পদের সঠিক হিসাব দেননি ট্রাম্প। একই অভিযোগে তার দুই ছেলেকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

আলোচনা সমালোচনায় এখনো সরব সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী নির্বাচনে আবারও প্রেসিডেন্ট পদে লড়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন। এমন খবর আসার পর থেকেই তার বিরুদ্ধে বিচার বিভাগের তদন্ত গতি পায়।

পারিবারিক ব্যবসা নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ে ডাকা হয়। সেখান ঠিক সময়ে পৌঁছালেও, তদন্ত কর্মকর্তার প্রশ্নের উত্তর দিতে অস্বীকৃতি জানান। বিরতি দিয়ে এই জেরা চার ঘণ্টা পর্যন্ত চলে।

জেরা শেষে ট্রাম্প জানান, তিনি কোনো অন্যায় করেননি। তাকে হেয় করার জন্য এই তদন্ত চলছে। এ সময় তিনি নিউইয়র্ক অ্যাটর্নি জেনারেল ও তদন্তের তীব্র সমালোচনা করেন। তাকে যে প্রশ্নই করা হয়, জবাবে সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনীর অধিকারের কথা তুলে ধরেন।

প্রেসিডেন্ট থাকার সময় সংবিধানে পঞ্চম সংশোধনী আনেন ট্রাম্প। যেখানে বলা আছে, কোনো মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তিকে তার নিজের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেয়ার জন্য বাধ্য করা যাবে না।

অ্যাটর্নি জেনারেল অফিস জানিয়েছে, তাদের তদন্ত চলবে এবং আইন ও তথ্য প্রমাণ যেদিকে নিয়ে যায় তারা সেদিকে যাবে। প্রশ্নের সঠিক জবাব দিলে ট্রাম্প হয়তো ফেঁসে যাবেন। ধারণা আইন বিশেষজ্ঞদের।

তদন্ত শেষে ট্রাম্প ও তার কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা করতে পারেন অ্যাটর্নি জেনারেল। এর আগে তার সন্তানদের যেন জেরা করা না হয়, সেজন্য অ্যাটর্নি জেনারেলের বিরুদ্ধে মামলা করতে চেয়েছিলেন। যা সুপ্রিম কোর্টে বাতিল হয়ে যায়।

- Advertisement -
- Advertisement -

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

সর্বাধিক পঠিত