30 C
Dhaka
মঙ্গলবার, আগস্ট ১৬, ২০২২

বন্যেরা বনে সুন্দর মেসি বার্সেলোনায়

বিশেষ সংবাদ

- Advertisement -

বিশ্বকাপে এবার এত অঘটন ঘটছে যে এটা বিশ্বকাপ নয়, বরং হয়ে গেছে বিস্ময় কাপ- আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্সের খেলার পর জানালেন বিশিষ্ট সাংবাদিক সানাউল্লাহ লাভলু।

অঘটনের বিশ্বকাপে দ্বিতীয় পর্ব শুরুই হল অঘটন দিয়ে। প্রথম খেলায় আর্জেন্টিনা ফ্রান্সের কাছে ৪-৩ গোলে হেরেছে। এই খেলার প্রতিটি গোলই ছিল অদ্ভুত সুন্দর। অতীতের পরিসংখ্যান এবং বাংলাদেশের দর্শকদের প্রত্যাশানুযায়ী কাল আর্জেন্টিনারই জয়লাভ করার কথা ছিল। যদিও খেলার ধারানুযায়ী অনেক এগিয়ে ছিল ফ্রান্স। মাঝেমধ্যে টেলিভিশনের পর্দায় বিষন্ন মুখ ছাড়া কালকের খেলায় এই সময়ের সেরা ফুটবলার মেসিকে খুব একটা খুঁজে পাওয়া যায়নি। অথচ এই মেসিই বার্সেলোনার পক্ষে খেলার সময় কী দুর্দান্ত হয়ে ওঠেন। সর্বত্রই তাই আলোচনা, কেন আর্জেন্টিনার পক্ষে খেলতে নামা মেসিকে এত অচেনা লাগে? এর উত্তর সম্ভবত নিহিত আছে সামগ্রিকভাবে এবারের আর্জেন্টিনা দলটির পারফর্মেন্সের উপর। মেসি ছাড়া আরো দুতিনজন বিশ্বমানের খেলোয়াড় থাকলেও সামগ্রিকভাবে এবার দলটির মান অত ভাল ছিল না। যার ফলে বিশ্বকাপের মূল পর্বে আসতেই তাদের অনেক ঝক্কি-ঝামেলা পোহাতে হয়েছে। এমনকী দ্বিতীয় পর্বে উত্তরণও সহজ ছিল না। কোচ স্যাম্পাওলির প্রশিক্ষণাধীন দলটির খেলায় পরিকল্পনার অভাব ছিল। তারপরও আর্জেন্টিনার সমর্থকরা গতকালের খেলার ফলাফল নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে পারেন। খেলার একটা পর্যায় পর্যন্ত এগিয়ে থাকা এবং শেষ পর্যন্ত চার গোলের বিপরীতে তিন গোল দেওয়াটা কম কৃতিত্বের না। শেষ মুহূর্তে ডি মারিয়ার পা ছোঁয়ানো বলটি ফ্রান্সের গোলবারে প্রবেশ করলে খেলার ফলাফল অন্যরকমও হতে পারতো। আরেকটি কাপের জন্য আর্জেন্টিনার প্রতীক্ষা আরো চার বছর দীর্ঘ হল। আগামী কাতার বিশ্বকাপে মেসি আর খেলবেন বলে মনে হয় না। কারণ তখন তার বয়স হবে পয়ত্রিশ। আমাদের হয়তো তাই মেনে নিতেই হবে ‘বন্যেরা বনে সুন্দর মেসি বার্সেলোনায়’। কাল ফ্রান্স শুধু ভালো খেলেই জিতেছে তা নয়, কাল তাদের আক্রমনভাগের খেলোয়াড় এমব্যাপে নতুন করে ফুটবল বিশ্বকে তার জাত চিনিয়েছে। ফ্রান্সের ১০ নম্বর জার্সিধারী কিলিয়ান এমব্যাপে ব্রাজিলের কিংবদন্তী খেলোয়াড় পেলের পরে দ্বিতীয় টিনএজার হিসেবে বিশ্বকাপের এক ম্যাচে জোড়া গোল করলেন। পেলে আর এমব্যাপের এই কীর্তির মাঝখানে কেটে গেছে ষাটটি বছর।

 

কাল মধ্যরাতের খেলায় হেরে গেছে আরেক ফুটবল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর দল পর্তুগাল। এবার বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলছে উরুগুয়ে। কালও তার ব্যতিক্রম ছিল না, ফলে ২-১ গোলে পর্তুগালের বিপক্ষে জিতেছে। দুটি গোলই দিয়েছেন এডিনসন কাভানি। এখানে একটা ব্যাপার লক্ষনীয় যে এমব্যাপে, কাভানি এবং নেইমার – তিনজনই ফ্রান্সের পিএসজি ক্লাবের খেলোয়াড়।

 

আর্জেন্টিনার সমর্থক রিগ্যানের ধারণা, বিশ্বকাপের প্রতিটি খেলার ফলাফলই জুয়ারিরা আগে থেকে নির্ধারণ করে থাকেন। তার এই ধারণা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন হলেও তাকে বোঝানো দায়। কাল সে জুয়ারিদের বরাতে আর্জেন্টিনার নিশ্চিত জয়ের আগাম ঘোষণা দিয়ে রেখেছিল। খেলাশেষে অবশ্য তার কোন মন্তব্য পাওয়া যাচ্ছে না।

 

এবারের বিশ্বকাপ থেকে কাল দুই তারকা মেসি আর রোনাল্ডোর বিদায় হয়ে গেলো, হয়তো এয়ারপোর্টের ফিরতি বিমানে তাদের দেখা হবে। বাংলাদেশের আর্জেন্টিনার সমর্থকরাও কাল থেকে অনেকটা চুপসে গেছে। তাদের অনেকেই হয়তো এই মুহূর্তটার কথা আগে ভাবেনি। ব্রাজিল বিশেষ করে নেইমারকে নিয়ে আর্জেন্টিনার সমর্থকদের ট্রল সকল প্রকার সীমা অতিক্রম করেছিল। শেষমেষ তারা নেইমারের ছাগল সংস্করণও বের করেছিল।

 

কালকের গ্যালারিতে আর্জেন্টিনার পরাজয়ে ছড়িয়ে পড়া শোকের প্রতি সমবেদনা। বেদনার রং নীল, কাল এটা আরো বেশী সত্যি হয়ে উঠেছিল আর্জেন্টিনার সমর্থকদের লাল-নীল জার্সির রঙে। ব্রাজিল সমর্থকদের অনেককেই আর্জেন্টিনার বেদনায় সমব্যথী হতে দেখা গেছে, আবার কেউ কেউ এক হালি ডিম নিয়ে বিদ্রুপে মেতেছে। ব্রাজিলের জন্য অগ্নি পরীক্ষা কাল, যদিও মেক্সেকোর চেয়ে অপেক্ষাকৃত সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে তারা।

 

আজ স্পেন বনাম রাশিয়া এবং ক্রোয়েশিয়া বনাম ডেনমার্কের খেলা। খেলার ধারানু্যায়ী স্পেন এবং ক্রোয়েশিয়ার জয়লাভ করা উচিত। তারপরেও আগাম ভবিষ্যদ্বানী আর করা যাবে না। কে জানে কখন আবার কোন খেলার ফলাফল উল্টে যায়। এ যে অঘটনের বিশ্বকাপ!

 

সবশেষে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথা শুনুন। সম্প্রতি পর্তুগালের রাষ্ট্রপতি মার্সেলো রেবেলো ডি সুজার সাথে সাক্ষাতের সময় ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো সম্পর্কে খোঁজ নিতে গিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, ‘সবাই বলে সে সেরা খেলোয়াড়। আমাকে বলুন তো, সে আসলে কতটা ভাল খেলোয়াড়! ক্রিস্টিয়ানো কি আপনার বিরূদ্ধে কখনো প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়াবে?’ ট্রাম্প ফাইনালি ট্র্যাম্পস!

//মাও
- Advertisement -
- Advertisement -

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

সর্বাধিক পঠিত