29 C
Dhaka
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

বিশ্বকাপে কোন দলকে সমর্থন করা নিরাপদ!

বিশেষ সংবাদ

- Advertisement -

ব্রাজিলের প্রথম খেলাটা আমি নীল রঙের একটা টি-শার্ট পরে দেখেছিলাম, ব্রাজিলের জার্সি পরে দেখিনি।

আমার ধারণা, এতে ব্রাজিলের অমঙ্গল হয়েছে।

যেসব সমর্থকদের স্ব স্ব দলের জার্সি আছে, তাদের অবশ্যই জার্সি পরে নিজসমর্থিত দলের খেলা দেখা উচিত।

হোক তা মাঠের গ্যালারিতে কিংবা টেলিভিশনের সামনে। পরেরবার আর এই ভুল করা যাবে না।

চার বছর আগে আমার পিএইচডি ছাত্র ডা. ইকবাল কবির ব্রাজিল থেকে আমার জন্য একটা জার্সি এনে দিয়েছিল।

এবার দেশে আসার সময় জার্সিটা সাথে করে নিয়ে এসেছি।

স্যুটকেস খুলতেই দেখি, কোনায় পড়ে থেকে জার্সিটা কুচকে গিয়েছে, ভাবলাম বাসার সামনের

লন্ড্রি থেকে ইস্ত্রি করে আনি। গিয়ে দেখি লন্ড্রি বন্ধ, ঈদের ছুটিতে সবাই বাড়ি গেছেন। ভাবলাম পাশের মহল্লার লন্ড্রি থেকে ইস্ত্রি করে আনি।

যেই ভাবা সেই কাজ।

পাশ দিয়ে চলে যাওয়া রিক্রিসার চালককে জিজ্ঞেস করলাম, যাবেন?

কোথায় যাবো জিজ্ঞেস না করেই উনি মুখের উপর বলে দিলেন ‘না’।

আমি একটু অবাকই হলাম, না যেতে চাইবার কারণ জিজ্ঞেস করলাম।

উত্তর শুনে তো আমি থ! রিক্সাচালক ভদ্রলোক আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের সমর্থক।

তিনি জ্ঞাতসারে ব্রাজিলের সমর্থকদের রিক্সায় নেন না। ‘কীভাবে জানলেন আমি ব্রাজিলের সমর্থক?’

শুধোতেই সরাসরি উত্তর, ‘আপনার হাতে ব্রাজিলের জার্সি’। এতদিন ফেসবুকে আর্জেন্টিনার পতাকার রঙে সজ্জিত রিক্সার ছবি দেখেছি।

কিন্তু বাস্তবতা দেখছি কখনো কখনো ফেসবুকের প্রচারণাকেও হার মানায়।

অত:পর হাঁটা শরীরের জন্য উত্তম- এই মন্ত্রে আস্থা স্থাপন করে লন্ড্রির উদ্দেশ্যে হাঁটা শুরু করলাম।

এবারের ফুটবল বিশ্বকাপে বড় দলগুলো শুরুতে ভালোই ধাক্কা খেয়েছে।

ফেভারিট তালিকার শীর্ষ চারে থাকা আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, জার্মানী এবং স্পেন তাদের প্রথম খেলায়ই ড্র

করে পয়েন্ট খুইয়েছে।

এই নিয়ে নিজেদের শিবিরে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ, পরের খেলায় দলগুলো কি ঘুরে দাঁড়াতে পারবে?

প্রতিপক্ষের কড়া মার্কিংয়ে থাকছে মেসি, নেইমাররা।

সুইজারল্যান্ডের ট্যাকেলের সামনে নেইমারকে বড় অসহায় মনে হেয়েছে, তার বিরূদ্ধে দশবার ফাউল

করেছে প্রতিপক্ষ, যা একটি বিশ্ব রেকর্ড।

এদিকে বারবার পেনাল্টি মিস করায় বিশ্বসুন্দরীদের ছবির পাশে মেসির ছবি সেঁটে দিয়ে নিন্দুকেরা তার

নিচে লিখে দিয়েছে ‘মিস পেনাল্টি’।

বড় দলগুলোর তুলনায় মাঝারি দলগুলো তাদের প্রথম খেলায় কাঙ্ক্ষিত জয় পেয়েছে।

গতকালের তিনটি খেলায় আপসেট কিছু ঘটে নি, যদিও ইংল্যান্ডকে ভালই ঘোল খাইয়েছে আফ্রিকার

দেশ তিউনিসিয়া। ফেভারিট দল হিসেবে বেলজিয়াম দাপটের সাথে খেলেছে।

জয় পেলেও খেলা দেখে মনে হয়েছে, সুইডেন বোধ হয় ড্র করতেই ভালবেসে।

তাদের খেলার মধ্যে জয়ের আগ্রাসী ক্ষুধাটা কাল পরিলক্ষিত হয়নি।

প্রিয় ফুটবল দলের খেলায় আগ্রাসী মনোভাব থাকুক আর নাই থাকুক, বিভিন্ন দলের সমর্থকদের মধ্যে দেশব্যাপী

চাপান-উতোর চলছেই। তবে দু:খজনক হলেও সত্যি যে সবখানে এটি মুখেই সীমাবদ্ধ থাকছে না।

পত্রিকায় দেখলাম,গতকাল খুলনার দৌলতপুরে ব্রাজিলের সমর্থকরা আর্জেন্টিনার সমর্থক এক দম্পতিকে

কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেছে। ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে এ ধরণের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ মোটেও প্রত্যাশিত নয়।

আসুন, আমরা ফুটবল খেলাটাকে আনন্দের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখি।

প্রিয় দলের পরাজয় বা ড্রয়ে আমরা কষ্ট পেতেই পারি, তবে তার প্রতিক্রিয়ায় কোন সন্ত্রাসের যেন জন্ম না হয়।

প্রিয় দলের পরাজয়ের কষ্ট সম্পূর্ণ এড়ানো না গেলেও আপনি যদি চান, আপনার পছন্দের দলটিই এবার

বিশ্বকাপচ্যাম্পিয়ন হোক, তবে তার চমৎকার একটি উপায় বাতলে দিয়েছেন অবস্কিওর ব্যান্ডের লিড

ভোকালিস্ট টিপু।

কাপজয় নিশ্চিত করতে চাইলে একাধিক দলকে সমর্থন করুন, আপনার সাফল্যের সম্ভাবনা শতকরা

পচানব্বই ভাগ।জয়তু ফুটবল বিশ্বকাপ!

//মাও

- Advertisement -
- Advertisement -

আরও পড়ুন

- Advertisement -

সর্বাধিক পঠিত