27 C
Dhaka
মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬, ২০২৪
spot_imgspot_img

গাজাতেই বসতি স্থাপন করতে চান ইসরায়েলিরা

যুদ্ধবিধ্বস্ত ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় বসতি স্থাপনের পরিকল্পনা করছে ইসরায়েলিরা। ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের অভ্যন্তরে গাজার নিয়ন্ত্রক সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের হামলায় অন্তত ১২শ ইসরায়েলি নিহত হওয়ার পর গাজায় পাল্টা হামলা শুরু করে ইসরায়েল। ২৫ মার্চ পর্যন্ত ইসরায়েলের সশস্ত্র বাহিনী আইডিএফের হামলায় গাজায় নিহত হয়েছে প্রায় ৩২ হাজার মানুষ।

এমন পরিস্থিতিতে গাজায় যুদ্ধ বিরতি নিয়ে আলোচনা চলছে। ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি বসতি স্থাপনা সংক্রান্ত একটি দলের নেতৃত্ব দেওয়া ডেনিয়েল ওয়েইস নামক এক নারী জানিয়েছেন, তার কাছে এমন ৫শ ইসরায়েলি পরিবারের তালিকা রয়েছে যারা গাজায় বসতি স্থাপন করতে আগ্রহী।

ডেনিয়েলা জানিয়েছে, তেল আবিবে তার কিছু বন্ধু রয়েছে, যারা গাজাতে তাদের জন্য প্লট রাখতে বলেছে। স্বর্ণালী বালু, সমুদ্র উপকূলসহ নানা কারণে গাজা আকর্ষণীয় স্থান বসবাসের জন্য। গাজায় বসতি স্থাপনের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্লট বরাদ্দও ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে ইসরায়েল।

১৯৬৭ সালে মধ্যপ্রাচ্যের পশ্চিমতীর এবং পূর্ব জেরুজালেমের দখল নেয় ইসরায়েল। সেই থেকে যে দলগুলো ফিলিস্তিনের ভূখণ্ডে ইসরায়েলের বসতি স্থাপনের নেতৃত্ব দিচ্ছে তার মধ্যে ওয়েইসের নাচালা অন্যতম। বর্তমানে এসব এলাকায় প্রায় ৭ লাখ বসতি স্থাপন করেছে ইসরায়েল। ইসরায়েলি এ নারী মনে  করেন, ফিলিস্তিনীদের অন্যান্য দেশে অভিবাসী হিসেবে চলে যাওয়া উচিত। গাজা হবে ইসরায়েলিদের বসতি স্থাপনের জায়গা। তবে ফিলিস্তিনিরা তাদের ভূখন্ড ছেড়ে যেতে অনাগ্রহী। এমনকি অন্যান্য কোন দেশও তাদের শরনার্থী হিসেবে গ্রহণ করবে এমন কথা এখনো বলেনি।

ইসরায়েল এবং মিশরের সঙ্গে ফিলিস্তিনের সীমান্তগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। অনেকেই জীবন বাঁচাতে অন্যান্য দেশে যাওয়ার চেষ্টা করছে। তবে ওয়েইসের পরিকল্পনায় যে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে তাতে পুরো ফিলিস্তিনী জনগোষ্ঠীকেই নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার লক্ষ্য রয়েছে ইসরায়েলের।

spot_img
spot_img

আরও পড়ুন

spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিশেষ প্রতিবেদন