26 C
Dhaka
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪
spot_imgspot_img

চ্যাটজিপিটির ব্যবহার জানেন তো!

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই, আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স) দিয়ে নতুন নতুন রচনা, গল্প, গান, কবিতা, প্রবন্ধ লিখতে পারে ওপেনএআই এর চ্যাটজিপিটি। সবার ব্যবহারের জন্য প্রকাশের পর থেকেই খবরের শিরোনাম হয়ে রয়েছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। শুধু তাই নয়, গুগল, অ্যামাজন, মাইক্রোসফট, মেটার মতো বিশ্বের শীর্ষ সব প্রযুক্তি কোম্পানি ছুটছে এআইয়ের পেছনে।

২০২২ সালের নভেম্বরে চালু হওয়ার পর, মাত্র দুই মাসে ১০ কোটি ব্যবহারকারী পেয়ে যায় এ চ্যাটজিপিটি। কম সময়ে সবচেয়ে দ্রুত বাড়তে থাকা অ্যাপের দৌড়ে এটি পেছনে ফেলে দেয় অনেক জনপ্রিয় অ্যাপকে। অবশ্য, মেটার থ্রেডস অ্যাপ ২০২৩ সালেই চ্যাটজিপিটি’র এ রেকর্ড ভেঙেছিল।

চ্যাটজিপিটি এতটাই জনপ্রিয় ও কার্যকর, এটি প্রোগ্রামার, লেখক, এমনকি ডাক্তারদের জায়গা নিয়ে নেবে কিনা- সে বিষয়ে অনেকেই শঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

তবে, এত আলোচনা-সমালোচনা ও খবরের শিরোনাম হওয়ার পরও অনেকেই এখনো চ্যাটজিপিটি ব্যবহার করেননি। চ্যাটজিপিটি ব্যবহারের সহজ উপায় হচ্ছে: প্রথমেই যেতে হবে ‘chat.openai.com’ এই লিংকের ওয়েবসাইটে। নতুন আপডেটের পর এখন চ্যাটজিপিটি ব্যবহার করতে কোনো অ্যাকাউন্ট খোলার প্রয়োজন নেই। তবে চ্যাটজিপিটি প্লাস ব্যবহারের ক্ষেত্রে অর্থ প্রদান করতে হয়।

অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য, নিচের বাম দিকের চ্যাট স্ক্রিনে ‘সাইন আপ’ অপশনে ক্লিক করুন। নির্দেশনা অনুসারে নিজের তথ্য দিন। ওপেনএআইয়ের ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য একটি মোবাইল ফোন নম্বরের দরকার হবে।

চ্যাটজিপিটি চালু করার পর ওয়েবসাইটে গিয়ে স্ক্রিনের বাম দিকে ‘নিউ চ্যাট’ অপশন দেখা যাবে, যেখানে ক্লিক করে যে কোনো সময়ে একটি নতুন কথোপকথন চালু করা যাবে।

স্ক্রিনের বাম দিকের নিচে নিজের নামের ওপরে ক্লিক করলে অ্যাকাউন্টের তথ্য দেখতে পাওয়া যাবে। সেখানে সেটিংস, লগ আউটের অপশন, ওপেনএআইয়ের ‘এফএকিউ’ বা চ্যাটবট সম্পর্কে বিভিন্ন সাধারণ প্রশ্নের উত্তর ও পাওয়া যাবে। চ্যাটজিপিটি প্লাস না থাকলে সেটির জন্য একটি ‘আপগ্রেড’ এর অপশন ও দেখা যাবে এখানে।

ব্যবহারকারীর বিভিন্ন প্রশ্ন বা প্রম্পট চ্যাট উইন্ডোর একেবারে মাঝখানে দেখা যাবে। অ্যাকাউন্টের ছবি ও নামের আদ্যক্ষর বাম দিকে থাকবে।

যদি প্রতিক্রিয়া পেতে কোনো অসুবিধা হয় বা মন মতো উত্তর না পাওয়া যায় সেক্ষেত্রে ‘রিজনারেট রেসপন্স’ অপশনে ক্লিক করলে চ্যাটজিপিটি আবার নতুনভাবে উত্তর দেবে।

চ্যাটজিইটির টেক্সট ইনপুটের নিচে কিছু লেখা রয়েছে যেখানে কোম্পানির ডিসক্লেইমার পড়তে পারেন, “চ্যাটজিপিটি ভুল করতে পারে। গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পরীক্ষা করার কথা বিবেচনা করুন।” এ ডিসক্লেইমার যোগ করার কারণ, চ্যাটজিপিটি অনেক ক্ষেত্রেই ভুল বা অর্থহীন উত্তর দিতে পারে। তাই অবশ্যই, উত্তরের তথ্য যাচাই করে নেওয়া উচিত।

যেহেতু প্রাথমিকভাবে যতটা জানার সবই জানা শেষ, এবারে নিজের ইচ্ছে বা প্রয়োজন অনুসারে যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন। এ ক্ষেত্রে সম্ভাবনার কোনো সীমা নেই (কেবল বেআইনী ও কোনো মানুষের ক্ষতি করার মতো বিষয় বাদে)। চ্যাটজিপিটি ব্যবহার করা যেতে পারে বাড়ির কাজের ক্ষেত্রে, লেখালিখির ক্ষেত্রে, সফটওয়্যার তৈরির ক্ষেত্রে, স্কুলের প্রজেক্টের কাজে, নোট সাজাতে ও আরও নানা উপায়ে।

পেজের একেবারে নিচে টেক্সট বারে নিজের ইচ্ছে মতো একটি প্রম্পট টাইপ করুন ও ‘সাবমিট’ অপশনে ক্লিক করুন। এরপরেই চ্যাটবটটি প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য টেক্সট তৈরি করবে। নিজের পছন্দের উত্তর না পেলে, আগের প্রশ্নটি আরো নির্দিষ্ট করে করুন। এভাবে যতবার ইচ্ছে বদলে নেওয়া যাবে চ্যাটজিপিটির উত্তর।

spot_img
spot_img

আরও পড়ুন

spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিশেষ প্রতিবেদন