34 C
Dhaka
বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪
spot_imgspot_img

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে

ভারী বৃষ্টি ও উজানের ঢলে, সিলেটের সব নদ-নদীর পানি বাড়ছে। জেলার ১২টি উপজেলা প্লাবিত। সুরমা কুশিয়ারার ছয় পয়েন্টে পানি বিপৎসীমার ওপর। তাই বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে সুনামগঞ্জে। পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ। এদিকে ফুলে-ফেপে উঠেছে তিস্তা।

ঘূর্ণিঝড় রিমালের ক্ষত না শুকাতেই, সিলেটে ফের বন্যা। কয়েক দিনের ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে, সিলেটের সবকটি নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে নদী তীরবর্তী এলাকায় পানি প্রবেশের শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

বৃষ্টি ও উজানের ঢলে সিলেটের সীমান্তবর্তী বেশ কয়েকটি উপজেলায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। গোয়াইনঘাট, কোম্পানীগঞ্জ, ওসমানীনগর, বালাগঞ্জ ও বিয়ানীবাজারে পরিস্থিতি বেশি খারাপ। তবে বৃষ্টি কমায় সিলেট নগরীর জলাবদ্ধতা কমছে।

এদিকে, গত রাতে ভারী বর্ষণ না হলেও, পাহাড়ি ঢলে সুরমার পানি বেড়ে, সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। জেলার সদর, ছাতক, দোয়ারাবাজার, মধ্যনগর, তাহিরপুর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার অনেক বাড়িঘর ও রাস্তাঘাট প্লাবিত হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুনামগঞ্জে ৬৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। ফলে সুরমা নদীর পানি সুনামগঞ্জ শহরের ষোলঘর পয়েন্টে বিপদসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে ও ছাতক পয়েন্টে ১৪৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

অন্যদিকে, তিস্তা ব্যারাজের ৪৪টি জলকপাট খুলে দেওয়া হয়েছে। তবুও পাহাড়ি ঢলে পানি বেড়ে বিপৎসীমা ছাড়িয়ে গেছে। পানি প্রবেশ করছে নদী তীরবর্তী নিম্নাঞ্চলে। চরের বেশ কিছু ঘরবাড়িতে পানি ঢুকেছে। ডুবে গেছে ফসলি জমি। শঙ্কায় রয়েছেন নদী তীরবর্তী মানুষ।

spot_img
spot_img

আরও পড়ুন

spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

বিশেষ প্রতিবেদন